September 19, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

তাজুল-জামায়াতকে ক্ষমা পেলেও ব্যাখ্যা দিতে হবে শিবিরকে

আদালত প্রতিবেদক : একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলামের রায় নিয়ে আদালত অবমাননাকর বক্তব্য প্রদানের অভিযোগ থেকে অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলামসহ দল হিসেবে জামায়াত ইসলামী বাংলাদেশ ও সংগঠনটির আমীর এবং সহ-সম্পাদককে অব্যাহতি দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। একই সঙ্গে শিবির সভাপতি ও সাধারণ সম্পদককে তাদের বক্তব্যের ব্যাখ্যা চেয়ে পুনরায় রুল জারি করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

সোমবার ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল আদেশপূর্বক এই রুল জারি করেন।

রুলের জবাব দিতে আগামী ২৪ মে দিন নির্ধারণ করেছেন ট্রাইব্যুনাল। তবে আগামী তিন সপ্তহের মধ্যে আইনজীবীর মাধ্যমে রুলের ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে শিবিরকে।

আদেশ শেষে এর প্রতিক্রিয়ায় প্রসিকিউটর তাপন কান্তি বল সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত ২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনাল যে শাস্তি প্রদান করেন তার প্রতিক্রিয়ায় তার আইজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম জামায়াতের সভাপতি ও সহ-সম্পাদক ও শিবির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে তাদের আদালত অবমাননাকর বক্তব্যের ব্যাখ্যা চেয়ে রুল জারি করেন ট্রইব্যুনাল-১। এদের মধ্যে অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম ও জামায়াতের নেতাকর্মী ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন। আদালত বিবেচনা করে তা আমলে নিয়েছেন এবং বাকিদের বিরুদ্ধে আদালত সন্তুষ্ট না হওয়ায় পুনরায় রুল জারি করেছেন।’

আদেশের প্রতিক্রিয়ায় প্রশিকিউশন সন্তুষ্ট কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আদালতের আদেশের প্রতি আমরা সব সময় শ্রদ্ধাশীল। আদালত যা উপযুক্ত মনে করেছেন তা আদেশ দিয়েছেন। আমরা এখন পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।’

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শিশির মোহাম্মদ মনির বলেন, ‘প্রশিকিউশনের পক্ষ থেকে তাজুল ইসলামসহ জামায়াত ও শিবিরের বিরুদ্ধে কন্টেম পিটিশন দায়ের করেছে। এখানে তাজুল ইসলাম নিঃশর্ত ক্ষমতা চেয়েছেন। সেই সঙ্গে জামায়াত তাদের ব্যাখ্যায় বলেছে- হরতাল একটি গণতান্ত্রিক অধিকার। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যেই আমরা হরতাল কর্মসূচি দিয়েছি। এতে আদালত সন্তুষ্ট হয়ে তাদেরকে অব্যাহতি প্রদান করেছেন। কিন্তু শিবিরের ব্যাখ্যায় আদালত সন্তুষ্ট না হওয়ায় তাদেকে আইনজীবীর মাধ্যমে আবারো ব্যাখ্যা প্রদান করতে বলা হয়েছে।’