December 1, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

খুলনায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে যুবক নিহত

খুলনা প্রতিনিধি: মহানগরীর খুলনা সদর থানা পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আল মামুন (৩৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ওসিসহ তিন পুলিশ আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে নগরীর বাগমারায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

পুলিশের ভাষ্য, খুলনা সদর থানার টহল পুলিশ মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর রায়পাড়া ক্রস রোড এলাকা থেকে তিনটি বিদেশি অত্যাধুনিক নাইন এমএম পিস্তল, একটি পয়েন্ট ৩২ রিভলবার ও ২১ রাউন্ড গুলিসহ খালিশপুরের নয়াবাটি বাজার এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে আল মামুন (৩৮) ও বাগমারা সেতু এলাকার মো. শামসুল হকের ছেলে ফারুক হোসেনকে (২৪) আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আল মামুন তার সহযোগীদের কাছে আরও অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করেন। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাত সাড়ে আটটার দিকে বাগমারা খালপাড় বুড়ির বাগানের কাছে গেলে ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। এতে আল মামুন গুরুতর আহত হন।

এসময় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুকুমার বিশ্বাস, উপ-পরিদর্শক অরুণ ও সহকারী উপ-পরিদর্শক আব্দুল আজিজ আহত হন বলে জানায় পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আহতদেরকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আল মামুনকে মৃত ঘোষণা করে।

খুলনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক দেবাশীষ বিশ্বাস বলেন, “ঘটনাস্থল থেকে একটি সাটোর গান ও গুলিসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের অপর সহযোগিদের আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আহত ওসিসহ অন্যরা হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।”

আল মামুন নগরীর সোনাডাঙ্গা এলাকার একটি ডাকাতি মামলায় গত ২ এপ্রিল কারাগার থেকে বের হয়েছেন। অপর সদস্য ফারুক হোসেন নগরীর বয়রা এলাকায় বাহাউদ্দিন-ইয়াসিন এন্টারপ্রাইজে কাজ করেন।