December 6, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

ইন্টারপোলের নোটিস ‘নাথিং’: বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদকে গ্রেপ্তার ও দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য ইন্টারপোলের মাধ্যমে জারি করা নোটিসকে ‘নাথিং’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে তার দল বিএনপি। এ বিষয়ে ‘সংকীর্ণ রাজনীতি’ না করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ শাহজাহান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এক ব্রিফিঙে তিনি বলেন, “নিখোঁজ সালাহ উদ্দিনের সন্ধান পেয়ে আমরা খুশি হয়েছি। কিন্তু এখন তাকে নিয়ে যেসব নিষ্ঠুর কথাবার্তা হচ্ছে, তা দুঃখজনক।”

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে গত ১০ মার্চ উত্তরার একটি বাসা থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তুলে নিয়ে যায় বলে তার পরিবারের অভিযোগ।

দুই মাস নিখোঁজ থাকার পর গত সোমবার ভারতের শিলংয়ে ইতস্তত ঘোরাঘুরির সময় পাসপোর্ট-ভিসাহীন অবস্থায় পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন সাবেক প্রতিমন্ত্রী সালাহ উদ্দিন। অসংলগ্ন আচরণের কারণে পুলিশ তাকে হাসপাতালে পাঠায়।

পরদিন মঙ্গলবার শিলংয়ের একটি হাসপাতাল থেকে সালাহ উদ্দিনের ফোন পান তার স্ত্রী হাসিনা আহমেদ। এরপরই বিষয়টি গণমাধ্যমে আলোড়ন তোলে।

৫৪ বছর বয়সী সালাহ উদ্দিন দাবি করেছেন, অচেনা এক দল লোক উত্তরার একটি বাড়ি থেকে তুলে নেওয়ার পর থেকে আর কিছুই তিনি মনে করতে পারছেন না। সিলেট সীমান্ত থেকে ১০০ কিলোমিটারের কম দূরত্বের শিলংয়ে কীভাবে এলেন, তাও তিনি বলতে পারেননি।

অবশ্য সরকারের মন্ত্রীদের ইংগিত, সালাহ উদ্দিনের অন্তর্ধানের পেছনে তার দলেরই হাত ছিল।

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কাযার্লয়ে ব্রিফিংয়ে শাহজাহান বলেন, “আমরা সরকারকে বলতে চাই- সালাহউদ্দিনকে নিয়ে কোনো নিষ্ঠুর ও নির্দয় মন্তব্য না করে তাকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে যথাযথ ব্যবস্থা ও সহায়তা করুন। তারা (সরকার) মানবিক আচরণ করবেন বলে আমরা প্রত্যাশা করি।’’

কলকাতার একটি পত্রিকায় ইন্টারপোলের ঢাকা অফিস থেকে ‘রেড নোটিস’ জারি প্রসঙ্গে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, “ইন্টারপোলের রেড নোটিস- এটা নাথিং। ইন্টারপোল হচ্ছে সারাবিশ্বের পুলিশদের একটি সংগঠন।

“যে নোটিসটি দেওয়া হয়েছে, সেখানে সালাহ উদ্দিন সম্পর্কে বাংলাদেশ সরকারের দৃষ্টিভঙ্গিই প্রতিফলিত হয়েছে। এর ভিন্ন কিছুই নয়।”

মেঘালয় পুলিশের মহাপরিচালক রাজীব মেহতাকে উদ্ধৃত করে কলকাতার ইংরেজি দৈনিক টেলিগ্রাফের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, সালাহ উদ্দিনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশে কয়েকটি ফৌজদারি মামলা থাকায় ইন্টারপোলের ঢাকা ইউনিট থেকে ভারতে ওই রেড নোটিস পাঠানো হয়।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রিপন বলেন, “সালাহ উদ্দিন আহমদ ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের এমন একটি জায়গায় অবস্থান করছেন, যার সঙ্গে বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো নয়। তার সম্পর্কে কথা বলতে হলে, আগে তার সঙ্গে কথা বলতে হবে। তার বর্তমান অবস্থা আমাদের জানতে হবে।

“আমরা এখনো তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে পারিনি। সুতরাং তার সঙ্গে যোগাযোগ না করে তার সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করা সম্ভব নয়।’’

বুধবার সালাহ উদ্দিনের সন্ধান বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে রিপন শুধু আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করে “আলহামদুলিল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ” বলেন।

ভিসা পেলে সালাহ উদ্দিনের স্ত্রী হাসিনা আহমেদ বৃহস্পতিবার বিকালেই ভারতে রওনা হবেন বলে জানান রিপন।

“তখন উনি ( হাসিনা আহমেদ) আমাদের জানালে আমরা বিস্তারিত গণমাধ্যমকে জানাব।”