December 6, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

একটি ঘুপচি ঘরে দু মাস ছিলাম: সালাহ উদ্দিন

কোলকাতা প্রতিনিধি : বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, ঢাকায় অপহৃত হওয়ার পর তাকে কোনও এক জায়গায় ঘুপচি একটি ঘরে রাখা হয়েছিল প্রায় দুমাস। তারপর বেশ কয়েকবার গাড়ী বদল করে মেঘালয়ের শিলংয়ে নিয়ে আসা হয়।

ভারতের মেঘালয় রাজ্যের পুলিশের সূত্র দিয়ে বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা থেকে বিএনপির অফিস সচিব আব্দুল লতিফ জনি শিলং পৌঁছে সালাহ উদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেছেন বলেও জানা গেছে।

বাংলাদেশে দুমাসের বেশি সময় ধরে নিখোঁজ বিএনপির যুগ্মমহাসচিব সালাহ উদ্দিনের সন্ধান পাওয়া যায় গত সোমবার। শিলং থেকে ওই দিন তিনি তার স্ত্রীকে ফোনও করেন। তিনি এখন স্থানীয় পুলিশের হেফাজতে চিকিৎসাধীন আছেন।

বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো প্রায় দুই ঘণ্টা সালাহ উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে মেঘালয় পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। পুলিশেরই কয়েকটি অসমর্থিত সূত্র দিয়ে বিবিসি জানায়, গোয়েন্দাদের সালাহ উদ্দিন জানিয়েছেন প্রায় ৬২ দিন বন্দি ছিলেন তিনি। এরপর চোখ বেঁধে বেশ কয়েকবার গাড়ী বদল করে তাকে এক জায়গায় ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে তিনি জানতে পারেন এটা শিলংএর গল্ফ লিংক এলাকা।

বৃহস্পতিবার আত্মীয় পরিচয় দিয়ে আরও দুইজন সালাহ উদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেন এবং তাকে খাবার ও পোশাক দিয়ে আসেন।