June 22, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

রমজানে পণ্যের দাম স্বাভাবিক থাকবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:সামনের রমজানে চাহিদার তুলনায় নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বেশি মজুদ থাকায় দাম স্বাভাবিক থাকবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।
তিনি বলেন, ‘রমজান উপলক্ষে চিনি, ভোজ্যতেল, ডাল, পেঁয়াজ, ছোলা, রসুনসহ নিত্যপণ্যের চাহিদামাফিক পর্যাপ্ত মুজদ আছে। কোন পণ্যের সংকট বা সরবরাহের ক্ষেত্রে সমস্যা হবে না। এজন্য আমরা দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই, কেবলমাত্র রমজান নয়, সারাবছর নিত্যপণ্যের মূল্য তাদের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকবে।’
মঙ্গলবার সচিবালয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে রমজানে নিত্যপণ্যের বাজার পরিস্থিতি নিয়ে এক পর্যালোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন,‘ব্যবসায়ীরা বিশেষ করে বড় আমদানিকারকরা আমাদের আশ্বস্থ করেছে, নিত্যপণ্যের মজুদ ও সরবরাহের মধ্যে সমন্বয় করবেন। আর পর্যাপ্ত মজুদ থাকায় কেউ কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করতে পারবেন না।’ তবে রমজানে পণ্য মূল্য স্বাভাবিক রাখতে তিনি ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চেয়েছেন।
তোফায়েল আহমেদ সভায় চিনি, ভোজ্যতেল, ডাল, পেঁয়াজ, রসুন, ছোলা, হলুদ, আদাসহ বেশ কিছু নিত্যপণ্যের বর্তমান চাহিদা ও মুজদ পরিস্থিতি তুলে ধরে বলেন, সব পণ্যের চাহিদার তুলনায় মজুদ বেশি আছে। এখন ব্যবসায়ীদের সহযোগিতায় আমরা এর সরবরাহ ঠিক রাখবো।
মন্ত্রীর দেওয়া তথ্যমতে, বর্তমানে দেশে বার্ষিক ১৩ থেকে ১৪ লাখ মেট্রিক টন চিনির চাহিদা রয়েছে। এর বিপরীতে ১৪ লাখ ৮২ হাজার মেট্রিক টন চিনি আমদানির এলসি নিস্পত্তি হয়েছে। এছাড়া সুগার করপোরেশনের কাছে আরো দেড় লাখ টন চিনি মজুদ আছে। আর ১৪ লাখ ৫০ হাজার টন ভোজ্যতেল চাহিদার বিপরীতে ১১ লাখ ৬৭ হাজার টন আমদানি হয়েছে। এছাড়া দেশে উৎপাদন হয়েছে আরো ৩ লাখ টন।
বর্তমানে দেশে মশুর ডালের চাহিদা ৩ লাখ ৭৫ হাজার টন। এর বিপরীতে দেশে উৎপাদন হয়েছে ২ লাখ ২৪ হাজার টন। আমদানি হয়েছে আরো এক লাখ ৭৫ হাজার টন। এছাড়া রমজানে ৬০ হাজার মেট্রিক টন আস্ত ছোলার চাহিদার বিপরীতে মজুদ রয়েছে ৩ লাখ ২৬ হাজার টন।
দেশে পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে ২১ থেকে ২২ লাখ টন। এর মধ্যে আভ্যন্তরীণভাবে উৎপাদনের পরিমাণ ১৯ লাখ টন,এছাড়া আরো ৪ লাখ টন আমদানি করা হয়েছে। ৫ লাখ ২৭ হাজার টন রসুনের চাহিদার বিপরীতে মুজদ রয়েছে ৫ লাখ ৫২ হাজার টন। আর ১৫ হাজার টন খেজুরের চাহিদার বিপরীতে ইতোমধ্যে ১৭ হাজার টন আমদানি হয়েছে।
সরকারের প্রবীন এই মন্ত্রী এবছর বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০দলীয় জোটের ৯২ দিনের সহিংস কর্মসূচির কঠোর সমালোচনা করে বলেন, এর মাধ্যমে খালেদা জিয়া চেয়েছিলেন দেশের পণ্য সরবরাহ কাঠামো (সাপ্লাই চেইন) ভেঙ্গে দিতে। কিন্তু দেশপ্রেমিক ব্যবসায়ীদের কারনে তিনি তার এই অসৎ উদ্দেশ্য সফল করতে পারেনি। তিনি ব্যর্থ হয়েছেন। এজন্য মন্ত্রী ব্যবসায়ীদের ধন্যবাদ জানান।
ব্যবসায়ীদের প্রতি মন্ত্রীর অগাধ আস্থা রয়েছে বলে তিনি জানান। বলেন, তাদের সহয়োগিতার কারনে গত রমজানে নিত্যপণ্যের দাম স্বাভাবিক ছিলো। এবারও তারা একই ধরনের সহযোগিতা করবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
উল্লেখ্য, এবছর আগামী ১৯ জুন থেকে পবিত্র রমজান শুরু হচ্ছে।