June 22, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

ফার্মেসিতে পশুখাদ্য, মালিকের জেল-জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর খিলগাঁও এলাকায় ‘খাঁন ফার্মা’ নামের একটি ফার্মেসিতে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। অভিযানে অবৈধ ও ভেজাল পোল্ট্রি ওষুধ তৈরি এবং মজুদের অপরাধে ফার্মেসি মালিককে জেল ও জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার সকালে র‌্যাব ২ এর অভিযান শেষে ফার্মেসি মালিক কামরুজ্জামানের (৩৮) স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ১৯৪০ সালের ওষুধ আইনের ১৮ ধারার অপরাধে ২৭ ধারা মোতাবেক তাকে এক বছরের কারাদণ্ড, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা এবং জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদন্ড প্রদান করা র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আনিসুর রহমান।

র‌্যাব ২ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন ২২৭/২ হাওয়াই রোড সংলগ্ন খাঁন ফার্মায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কামরুজ্জামান জানায়, সে প্রায় দুই বছর যাবৎ এ ভাবে ভেজাল ওষুধের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর থেকে ঔষধ ব্যবসা পরিচালনা করার কোনো বৈধ লাইসেন্স নাই। সে অত্যন্ত নিম্নমানের উপাদান দিয়ে অ্যান্টিবায়টিকসহ উচ্চ পাওয়ারের গবাদি পশুর ওষুধ তৈরি করে।

এমনকি, ওষুধের প্যাকেটের গায়ে দেশি-বিদেশি নামি দামি ব্যান্ডের কোম্পানির লেভেল লাগিয়ে বাজারজাত করা হয়। এই সকল বিষাক্ত ওষুধ গবাদি পশুর মাংস খাওয়ার মাধ্যমে মানুষের শরীরে প্রবেশ করে। যার প্রতিক্রিয়ায় মানুষ নানা ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হয়।

মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনাকালে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম এবং খাদ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মনির উদ্দিন।