September 28, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

মোদির সাক্ষাৎ পাচ্ছেন না ব্যবসায়ী নেতারা

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : “আসন্ন ঢাকা সফরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাক্ষাৎ পাচ্ছেন না দেশের ব্যবসায়ী নেতারা। এমনকি তার সফরসঙ্গীদের সঙ্গেও ব্যবসায়ীদের বৈঠকের কোনো সম্ভাবনা নেই।”

সোমবার এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমাদ বিষয়টি জানিয়েছেন। মতিঝিল ফেডারেশন ভবনে সংগঠনটির নবগঠিত পরিচালনা পর্ষদের প্রথম বোর্ডসভা শেষে নিউজবাংলাদেশের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

সফরটি দুই সরকারের মধ্যেকার গুরুত্বপূর্ণ বিধায় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলাদা বৈঠকের সুযোগ থাকছেনা বলেও জানান মাতলুব আহমাদ। এসময় নবগঠিত পর্ষদের বেশ কয়েকজন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

আব্দুল মাতলুব বলেন, “ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি আমাদের দেশে আসছেন, এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের। কিন্তু তার এ সফরে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক বা তার সফর সঙ্গীদের সঙ্গে বৈঠকের কোন সময় এখন পর্যন্ত এফবিসিসিআই পায়নি। আমরা জানতে পেরেছি তার সফর মাত্র ৩৬ ঘণ্টার। তারপরেও আমরা আশাবাদী। কোনভাবে হয়তো তার সঙ্গে বা সফর সঙ্গীদের সঙ্গে বসার সুযোগ পেতে পারি।”

তিনি বলেন, “আমি জানতে পেরেছি তার সঙ্গে ভারতের ৩৫ জন শিল্পপতি ঢাকায় আসবেন, এ বিষয়ে আমি নিশ্চিত নই। তবে ভারতের কোন ব্যবসায়ী যদি আসেন, আমরা তাদের ফেডারেশনে নিয়ে আসবো এবং দুই দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য বিষয়ে আলোচনা করবো।”

তবে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন হিসেবে মোদির এ সফরে কোন সময় বা সফরসঙ্গীদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সুযোগ না থাকাকে নিজেদের ব্যর্থতা বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ৬ জুন দুই দিনের সফরে ঢাকা আসছেন নরেন্দ্র মোদি। তার প্রথম ঢাকা সফরে সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়, তৃতীয় দেশে পণ্য পরিবহন ও ট্রানজিটের জন্য মাশুল নির্ধারণ, ভিসা সহজ করণের ঘোষণা থাকলেও তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি হচ্ছে না। মূলত পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত নিয়েই এ চুক্তি হবে বলে জানিয়েছে ভারতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সাধারণ সদস্যের ভোটে ফেডারেশনের প্রধান নেতা নির্বাচন প্রসঙ্গে উপস্থিত প্রথম সহ-সভাপতি শাফিউল ইসলাম বলেন, “এ বিষয়ে বোর্ড একমত হয়েছে, বর্তমান প্রক্রিয়ার সংস্কার করা প্রয়োজন। এ লক্ষ্যে সংগঠনের সাবেক নেতা ও বর্তমান নেতাদের সমন্নয়ে পর্যালোচনার মাধ্য সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হবে।”

এছাড়া বৈঠকে ট্যাক্স রেট ও ভ্যাট সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। ব্যবসায়ীদের জন্য বর্তমান ব্যবস্থার ট্যাক্স ও ভ্যাট কিভাবে আরো সহনশীল করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।