September 28, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

মানসিক রোগীরা বেশি ধূমপায়ী

ডেস্ক প্রতিবেদন : মানসিক রোগীরা সাধারণ মানুষের চেয়ে তিন গুণ বেশি ধূমপান করে। জনস্বাস্থ্য যুক্তরাজ্য (পিএইচই) ও জাতীয় স্বাস্থ্য সেবার (এনএইচএস) এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ধূমপান বিষণ্নতা ও উদ্বেগ বৃদ্ধি করতে পারে। ধূমপানের কারণে ওষুধের কার্যকারিতা ৫০ শতাংশ কমে যেতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

জনস্বাস্থ্য যুক্তরাজ্য (পিএইচই) চায় সব মানসিক হাসপাতাল হবে ধূমপানমুক্ত এলাকা। কিন্তু ধূমপায়ী অধিকার গোষ্ঠী ফরেস্ট বলছে, ধূমপান করতে সাধারণ মানুষের মতোই মানসিক স্বাস্থ্য ইউনিটে রোগিদের একই রকম স্বাধীনতা থাকা উচিত।

জনস্বাস্থ্য যুক্তরাজ্য জরিপে বলা হয়, মানসিক রোগিদের মধ্যে ৬৪ শতাংশ তামাকে আসক্ত। সেখানে সাধারণ মানুষের মধ্যে মাত্র ১৮ শতাংশ এতে আসক্ত।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানসিক রোগিদের বেঁচে থাকার প্রত্যাশা ১০ থেকে ২০ বছর কমে যাওয়ার প্রধান কারণ ধূমপান।

স্বাস্থ্য ও জনকল্যাণের পিএইচই জাতীয় পরিচালক কেভিন ফেনটোন বলেন, মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা নিয়ে বেঁচে থাকা মানষের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে অগ্রণযোগ্য অসমতা কমাতেই এ জরিপ চালানো হয়েছে।

২৫ বছরের বেশি সময় ধরে লন্ডনের মাউদস্লে হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থায় ভারপ্রাপ্ত নারী ম্যারি ইয়েটস বলেন, ধূমপান শুধু মানুষের শারীরিক নয় মানসিক ক্ষতিও করে থাকে। তবে এরকম প্রচুর প্রমাণ রয়েছে, যেসব মানুষ ধূমপান করে না তারা মানসিকভাবে ভালো থাকে। তাদের উদ্বিগ্নতা কমে, আত্মবিশ্বাস বাড়ে, মন প্রফুল্ল থাকে এবং অনুভব করতে শুরু করে তারা জীবনে যেকোনো বাধা অতিক্রম করতে সক্ষম।