June 23, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড বহালের আশ্বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক : অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত পে-স্কেলে টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড  বহাল রাখার আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী পরিষদের নেতারা। সোমবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎশেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান সচিবালয়ে কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাঁচটি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সচিবালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী সংগঠন নেতারা  জানান, অর্থমন্ত্রী আমাদের জানিয়েছেন, সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্তির দাবি যৌক্তিক। এটি না রাখার বেদনায় আমিও ব্যথিত। বাজেট ব্যস্ততার কারণে এতদিন বিষয়টি আমি ভালো করে নজরে আনতে পারিনি। তবে মনে হচ্ছে এ দাবি অতি যৌক্তিক। আমিও চাই যাদের পদোন্নতির সুযোগ নেই, তারা এ ধরনের একটা আর্থিক সুবিধা পেয়ে থাকুক।

কর্মকর্তা-কর্মচারী নেতারা আরো জানান, আমাদের মনে হয়েছে- অর্থমন্ত্রী বিষয়টি এখন গভীরভাবে অনুধাবন করেছেন। তাই এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হবেন বলেও জানান তিনি। আগামী সপ্তাহের শেষদিকে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হতে পারে উল্লেখ করে তিনি সেখানেই টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেডের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করবেন।

সংগঠনের নেতারা এ দাবি ছাড়াও অর্থমন্ত্রীর কাছে ২০টি গ্রেডের মধ্যে বৈষম্য কমিয়ে আনা, সর্বনিু গ্রেডের বেতন আরও বৃদ্ধি, ২০ শতাংশ সচিবালয় ভাতা প্রদান এবং পে-স্কেল প্রদানের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পারিবারিক সদস্যসংখ্যা প্রচলিত চার সদস্যের পরিবর্তে ছয় সদস্য গণনার দাবিও তুলে ধরেন।

অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে সচিবালয়ে কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাঁচটি সংগঠনের প্রতিনিধিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সাবেক এপিএস-১ এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. খাইরুল ইসলাম।

এছাড়া পাঁচ সংগঠনের প্রতিনিধিদের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের কার্যকরী সভাপতি মো আবু ছাইদ ও মহাসচিব মো. রুহুল আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া হাছান, মো. গোলাপ মিয়া, আলাউদ্দিন হাওলাদার, বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী সংযুক্ত পরিষদের সভাপতি মো. নিজামুল ইসলাম ভূঁইয়া মিলন, সচিবালয় ব্যক্তিগত কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক এসএম ফরিদ আহমেদ, বাংলাদেশ সচিবালয় প্রশাসনিক কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি রেজোয়ান চৌধুরী, বাংলাদেশ সচিবালয় চতুর্থ শ্রেণীর সরকারি কর্মচারী সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ আলী ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আবুল হাশেম এবং বাংলাদেশ সচিবালয় গ্রন্থাগার পেশাজীবী সমিতির সভাপতি আবু মো. হান্নান মিয়া ও মহাসচিব শামীমা আক্তার চৌধুরী প্রমুখ।