October 22, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

তাপদাহ মোকাবিলায় পাকিস্তানে সেনা তলব

বিদেশ ডেস্ক : পাকিস্তানে চলছে এক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপপ্রবাহ। গত চারদিনে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ১২০০ ছাড়িয়েছে। নিহতদের অধিকাংশই করাচির বাসিন্দা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আজ বুধবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সব সরকারি কার্যালয়ে সেনা তলব করা হয়েছে।

গত সপ্তাহের শুরু হওয়া রমজানের শুরুতে দক্ষিণ সিন্ধ প্রদেশ তাপপ্রবাহ বাড়তে থাকে। টানা চারদিন সেখানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৪৫ ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি। প্রদেশটির বড় বড় হাসপাতালে জারি করা জরুরি অবস্থায়ও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে না। বাড়তে চলেছে নিহতের সংখ্যা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসসহ ভারতের একাধিক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, করাচিসহ বেশ কিছু এলাকার হাসপাতালে জরুরি অবস্থা জারি রয়েছে। আজ বুধবারও শুধু করাচির হাসপাতালগুলোতে নিহত হয়েছে প্রায় ৩৫০ মানুষ। করাচিতে আজ তাপমাত্রা বিরাজ করছে ৪৪.৫ ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি।

ইদি নামের একটি ওয়েলফেয়ার সংস্থা জানিয়েছে, গত তিন দিনে শহরে দুটি মর্গে চারশ’র বেশি লাশ জমা পড়েছে। সবচেয়ে বেশি নিহত হয়েছে করাচির জিন্নাহ পোস্ট-গ্রাজুয়েট মেডিকেল কলেজে। এখানে বর্তমানে চার হাজারের বেশি রোগী অবস্থান করছে।

হাসপাতালসূত্র জানিয়েছে, হিটস্ট্রোক ৬৫ জনসহ গত চারদিনে এই কলেজে ২৭০ জন মারা গেছে।

উচ্চ তাপপ্রবাহের শিকার মানুষের জরুরি সহায়তার জন্য সংশ্লিষ্ট জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ।

এছাড়া হিটস্ট্রোট ত্রাণ সেন্টার স্থাপন ও জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করার জন্য অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সিন্ধ প্রদেশের সব হাসপাতালে এই সেন্টার স্থাপনের জন্য বলা হয়েছে।