October 23, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

উরুগুয়েকে হারিয়ে কোপার সেমিতে চিলি

ক্রীড়া ডেস্ক : স্বপ্নের দৌড় অব্যাহত চিলির। সোমবার কোপা আমেরিকার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়েকে ১-০ গোলে হারিয়ে টুর্নামেন্টটির সেমিফাইনালে নাম লিখিয়েছে আলেক্সিজ সানচেজ-আর্তুরো ভিদালরা।

খেলার ৮১ মিনিটে দশ জনের উরুগুয়ের বিপক্ষে চিলির হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন ইতালিয়ান দৈত্য জুভেন্টাসের ডিফেন্সের অতন্দ্র প্রহরী মৌরিসিও ইসলা। উরুগুয়ের জর্জ ফুসিলে ও এডিনসন কাভানি লালকার্ড দেখেন। খেলার ৬২ ও ৮৮ মিনিটে দুই লালকার্ড পায় উরুগুয়ে। ফলে শেষ পর্যন্ত নয় জনের দলে পরিণত হয় অস্কার তাবারেজের প্রশিক্ষণাধীন দলটি।

উরুগুয়ে দ্বিতীয় লালকার্ড পাওয়ার পর বেশ কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ ছিল। কারণ উরুগুয়ের খেলোয়াড়রা রেফারিকে ঘিরে ধরে তার সিদ্ধান্তের জবাব চাইছিল। পরে ভিডিও ফুটেজেও দেখা গেছে লঘুপাপে গুরু দণ্ড পেয়েছেন কাভানি। কারণ, কাভানিকে প্রথম চাপড় মেরেছিল চিলির গনজালো জারা। এরপর একটা ধাক্কাও দেয়।

তখন প্যারিস সেন্ট জার্মেইন স্ট্রাইকার জারাকে মুখে আঘাত করেন। এই অবস্থায় পড়ে যান চিলি ইন্টারন্যাশনাল। ফলে রেফারি কাভানিকে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেয়। দুই হলুদ কার্ডের খঁড়গে যা লালকার্ডে রূপান্তরিত হয়। বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ উরুগুয়ে কোচ তাবারেজ বলেন, “এটা খুব তিক্তকর। টেলিভিশন ফুটেজ ও ফটোগ্রাফ দেখুন, ম্যাচে কী হয়েছে সেটা জানতে পারবেন।”

খেলার ৮২ মিনিটে একমাত্র গোলটি পায় চিলি। উরুগুয়ের গোলকিপারের দুর্বল একটি ফিঞ্চ থেকে বল পেয়ে ১৫ গজ দূর থেকে লক্ষ্যভেদ করেন ইসলা। অবশ্য রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্ত থাকলেও ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আধিপত্য বজায় রাখে চিলি। ৮০ শতাংশ বলের দখল তাদের পায়েই ছিল।

প্রসঙ্গত, ১৯১৬ সালে কোপা আমেরিকা ফুটবল টুর্নামেন্ট প্রবর্তনের পর থেকে কখনোই এই শিরোপা জেতেনি চিলি। এবার সেই সুযোগ তাদের সামনে। টুর্নামেন্টটির শেষ চারে পেরু কিংবা বলিভিয়ার মুখোমুখি হবে দ্য রেডরা।