June 25, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

টাইগারদের বিপক্ষে পাকিস্তানের নয়া ষড়যন্ত্র!

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর থেকেই বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্রে নেমেছে পাকিস্তান। এজন্য জিম্বাবুয়েকে দিয়ে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের পরিকল্পনা করছে তারা!

ত্রিদেশীয় ওই সিরিজ পাকিস্তান, জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। এর মূল উদ্দেশ্য হল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ জিতে র‌্যাংকিংয়ে পয়েন্ট বৃদ্ধি করা। সামনের মাসেই এ সিরিজ অনুষ্ঠিত হতে পারে।

চ্যাম্পিয়ানস ট্রফিতে খেলার জন্য বাংলাদেশের সমীকরণটা ছিল, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের ছয়টি ওয়ানডের দুটি জিতলেই বাংলাদেশ খেলবে ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। ভারতের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয়ের পর বাংলাদেশ যখন চ্যাম্পিয়নস ট্রফি খেলার কাউন্টডাউন শুরু করেছে, তখনই শুরু হয় এই নতুন ষড়যন্ত্র।

অবশ্য, আগস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের দ্বিপক্ষীয় সিরিজ আয়োজনের পরিকল্পনা ছিল জিম্বাবুয়ের। অবশ্য ওই সিরিজের সূচি এখনো চূড়ান্ত হয়নি। দ্বিপাক্ষীয় সিরিজের মাঝে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে যোগ করার বিষয়টি বেশ গোলমেলেই হয়ে গেছে। কারণ, ভারতের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ জেতায় র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান এখন সাতে। অষ্টম দল হিসেবে শুধু লড়াইয়ের কথা পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

আইসিসির এফটিপি অনুযায়ী, আগামী মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ রয়েছে পাকিস্তানের। এরপর আগস্টে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে কোয়ালিফাইয়ের ‘ডেডলাইন’ অনুযায়ী, আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোনো ম্যাচ ছিল না।

কোন ম্যাচ না থাকার কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি থেকে বাদ পড়ার কথা। কিন্তু এখন হিসাবটা গোলমেলে করে দিতে পারে আলোচিত এ ত্রিদেশীয় সিরিজে। অর্থাৎ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তান বেশি ম্যাচ খেলে জিতলেই রেটিং পয়েন্ট বাড়বে। তখন বাংলাদেশের কপাল পুড়বে। অবশ্য এর মাঝে বাংলাদেশ যদি একটি ম্যাচেও দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে পারে তাইলে বাংলাদেশই চ্যাম্পিয়ন ট্রফিতে খেলবে।

অর্থাৎ সর্বশেষ আইসিসি’র র‌্যাংকিংয়ের হিসেব অনুযায়ী বাংলাদেশ ৯৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সাত নম্বরে অবস্থান করছে। আটে রয়েছে ৮৮ রেটিং পয়েন্ট পাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর নয় নম্বরে রয়েছে ৮৭ রেটিং পয়েন্ট পাওয়া পাকিস্তান। জিম্বাবুয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির খেলার যোগ্যতা অর্জন করা অসম্ভব। কারণ তাদের রেটিং পয়েন্ট মাত্র ৪৪।

এসব হিসেব নিকেশ করেই ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জিতে বাংলাদেশ র‌্যাংকিংয়ে এগিয়ে যাওয়ার ফলেই ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান। তবে বলা হচ্ছে, চ্যাম্পিয়নস ট্রফির হিসাবের বাইরে থাকা জিম্বাবুয়ে এ ত্রিদেশীয় সিরিজের মূল উদ্যোক্তা। তারাই উদ্যোগী হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের এক কর্মকর্তা এ বিষয়ে বলেন, “সম্প্রতি আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করেছি। ওয়েস্ট ​ইন্ডিজকে আমন্ত্রণ জানিয়েছি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে। তবে এখনো কিছুই চূড়ান্ত হয়নি।”

জিম্বাবুয়ে যেহেতু আয়োজক, স্বাভাবিকভাবেই তারাই আমন্ত্রণ জানাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। প্রশ্ন উঠেছে কিন্তু হঠাৎ​কেন এ পরিকল্পনা? বিশেষ করে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ দুটো ম্যাচ জয়ের পর কেন এ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে?

তবে কি জিম্বাবুয়েকে সামনে রেখে আড়ালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সাথে নিয়ে কলকাঠি নাড়ছে পাকিস্তান। ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জিতে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিশ্চিত হওয়ার পর থেকে বাংলাদেশের বিপক্ষে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে পাকিস্তান। তথ্যসূত্র: ক্রিকেটকম অস্ট্রেলিয়া ও ডন।