September 18, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

ময়মনসিংহে যাকাতের কাপড় নিতে গিয়ে নিহত ২২

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহে যাকাতের কাপড় নিতে গিয়ে ভীড়ের মধ্যে পদদলিত হয়ে একই পরিবারের চারজনসহ প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ২২ জন যাকাতপ্রার্থী। আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক। এর মধ্যে চারজনের অবস্থা গুরুতর।

শুক্রবার ভোর ৫টার দিকে শহরের নূরানী জর্দা ফ্যাক্টরিতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কাপড় বিতরণকারী জর্দা ফ্যাক্টরির মালিক শামীম মিয়াসহ আটজনকে আটক করেছে পুলিশ।

ঘটনা তদন্তে পুলিশ সদর দপ্তর তিন সদস্যের কমিটি করেছে। পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে এর রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার পর নূরানী জর্দা ফ্যাক্টরির সামনে যাকাতপ্রার্থীদের ফেলে যাওয়া জুতা-স্যান্ডেল পড়ে থাকতে দেখা যায়।

এ ঘটনায় আহত অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নূরানী জর্দা ফ্যাক্টরির মালিক মো. শামীম প্রতি বছরই যাকাত দেন। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সেহরির পরপরই যাকাতের কাপড় বিতরণের উদ্দেশ্যে জর্দা ফ্যাক্টরির গেট খোলা হয়। এ সময় কয়েক হাজার নারী-পুরুষ এক সঙ্গে হুড়োহুড়ি করে গেটের ভেতর ঢুকতে চাইলে শতাধিক মানুষ পদদলিত হন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মঈনুল হক বলেন, রাস্তার প্রশস্থ কম হওয়ার কারণে অতিরিক্ত ভিড়ে যাকাতপ্রার্থীরা হিমশিম খেয়ে যায়। এ সময় তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে পদদলিত হওয়ার ঘটনা ঘটে।

তিনি জানান, কাপড় নেওয়ার সময় সুশৃঙ্খল লাইনের ব্যবস্থা না করায় এমন ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।