June 22, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

আন্তঃনদী ইস্যুতে সরকারকে বিএনপির সমর্থন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভারতের সঙ্গে আন্তঃনদী ইস্যুতে পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ে বর্তমান সরকারকে ব্ল্যাংক সাপোর্ট দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি।

রাজধানী নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে এই ঘোষণা দেন দলটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন।

আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, ‘১৩ জুলাই ভারতের কেন্দ্রীয় সেচমন্ত্রীর বরাত দিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, ভারত-বাংলাদেশের সঙ্গে অভিন্ন তিনটি নদীর উজানে বাঁধ দিয়ে আন্তঃনদী সংযোগ প্রকল্প চালু করতে যাচ্ছে। বর্ষা মৌসুমে এই নদীগুলোর পানির প্রবাহ তারা তাদের অন্য রাজ্যের নদীগুলোতে টেনে নিয়ে যাবে। এটি চালু হলে বাংলাদেশের পরিবেশে ভয়াবহ বিপর্যয় ঘটবে। শুষ্ক মৌসুমে বাংলাদেশ মরুভূমিতে পরিণত হবে।’

ভারতের এই সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের জন্য মৃত্যুদণ্ডের সমতুল্য বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই মুখপাত্র। রিপন আরও বলেন, ‘পানির ইস্যুটি শুধু চিঠি-চালাচালির বিষয় নয়, এখানে উদ্বেগের বিষয়ও রয়েছে। পানি নিয়ে বাংলাদেশের সব মানুষ একাট্টা। পানির স্বার্থে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, কমিউনিস্ট পার্টির মধ্যে কোনো বিভাজন নেই। পানি আমাদের প্রাণ।’

আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, ‘সরকার যেহেতু বলতে চান, তারা আইনগতভাবে অবৈধ নন। এখন তাদেরই দায়িত্ব এই বিষয়গুলো তুলে ধরা। আমরাও বলি, সরকার যেহেতু আইনগতভাবে অবৈধ নয়, তাই তাদের এই বিষয়গুলো ভারতের কাছে তুলে ধরতে হবে।’

ড. রিপন ভারতের আন্তঃনদী প্রকল্পের বর্তমান অবস্থা জানতে সরকারকে প্রয়োজনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ভারতের হাইকমিশনারকে ডেকে পাঠানোরও আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘ইস্যুটি শুধু পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কেও যুক্ত করা উচিৎ।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশকে না জানিয়ে ভারত যদি ওই প্রকল্পের কাজ শুরু করে তখন সরকারের আর কিছুই করার থাকবে না। তাই অতি দ্রুত বাংলাদেশকে ভারত সরকারের উপর চাপ প্রয়োগ করতে হবে। জরুরি ভিত্তিতে আলোচনায় বসতে হবে। এই ইস্যুতে সরকারকে বিএনপি সকল ধরনের সাহায্য করতে প্রস্তুত।’

সরকার এই বিষয় নিয়ে জরুরি উদ্যোগ নেবে বলেও আশা করে বিএনপি। জাতীয় স্বার্থে বিএনপি সরকারকে সব ধরনের সাহায্য করতেও প্রস্তুত— জানান রিপন।

‘বিএনপি ভাঙার তথ্য জানা নেই’— আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের এমন বক্তব্যের ব্যাপারে জানতে চাইলে ড. রিপন বলেন, ‘বিএনপি জনগণের দল। জনগণ এই দলকে টিকিয়ে রাখবে।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী আসাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ।