October 22, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

অবৈধ ভিওআইপি ‘অনেকটা নিয়ন্ত্রণে’: জয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসা ‘অনেকটা নিয়ন্ত্রণে’ এসেছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, এ ধরনের অপরাধ পুরোপুরি বন্ধ করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে এসে কর্মকর্তাদের সঙ্গে মত বিনিময়ে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি উপদেষ্টার দ্বায়িত্ব নেয়ার পর এই প্রথম তিনি মন্ত্রণালয়ে এলেন।

মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্যে জয় বলেন, “অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসা অনেকটা বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছি আমরা। আমার উদ্দেশ্য এটা সম্পূর্ণ বন্ধ করা।”

প্রধানমন্ত্রীর ছেলে জয় সকাল ১১টার দিকে মন্ত্রণালয়ে পৌঁছালে প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম ও মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান।

জয় বলেন, “আমাদের উদ্দেশ্য, আমার উদ্দেশ্য হল- দেশের মানুষের কাছে তথ্য-প্রযুক্তি সেবা পৌঁছে দেয়া। টেলিযোগাযোগ সুবিধার খরচ কমানো এবং কাভারেজ বাড়ানো।”

দেশের প্রায় ১০০ শতাংশ এলাকা মোবাইল ফোন নেটওয়ার্কের আওতায় এসেছে জানিয়ে তিনি বলেন, সরকার ইন্টারনেট নেটওয়ার্ককেও ওই পর্যায়ে নিয়ে যেতে চায়।

এই লক্ষ্য পূরণে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সহযোগিতা চান জয়।

তিনি বলেন, “আমার অনেক দিনের স্বপ্ন ছিল ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলা। মানুষের কাছে তথ্য-প্রযুক্তির সেবা পৌঁছে দেওয়া। টেলিযোগাযোগ হল তথ্য-প্রযুক্তির সেবা পাওয়ার রাস্তা।”

ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগ একই মন্ত্রণালয়ের অধীনে আসায় কাজ করতে ‘সুবিধা হবে’ বলে মত দেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের কাজের ওপর একটি উপস্থাপনা দেখানো হয়। উপদেষ্টা বিভিন্ন বিষয়ে কর্তকর্তাদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন।

অন্যদের মধ্যে সচিব মো. ফয়জুর রহমান চৌধুরী, বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস, বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শওকত মোস্তফা, টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, সাবমেরিন কেবল কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনোয়ার হোসেন এবং প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।