May 20, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

দুর্বল হয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত কোমেন, কমেছে সংকেত

ডেস্ক প্রতিবেদন : ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৭০ কিলোমিটার বেগের ঝড়ো হাওয়া নিয়ে সন্দ্বীপের কাছ দিয়ে চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করার পর দুর্বল হয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে ঘূর্ণিঝড় ‘কোমেন’।

শুক্রবার সাকালে আবহাওয়ার বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, স্থল নিম্নচাপটি বর্তমানে নোয়াখালী ও আশেপাশের জেলাগুলোর উপর অবস্থান করছে, যার প্রভাবে বৃষ্টি হচ্ছে দেশের অধিকাংশ এলাকায়।

পশ্চিম-উত্তরপশ্চিম দিকে এগিয়ে বৃষ্টি ঝরিয়ে এই নিম্নচাপ আরও দুর্বল হয়ে পড়বে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ঘূর্ণিঝড়ের কারণে গত দুদিন ধরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে আসা চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে এখন তা নামিয়ে ৩ নম্বর স্থানীয় সর্তকর্তা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে ।

মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকেও ৫ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে দেখাতে ৩ নম্বর স্থানীয় সর্তকর্তা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় কোমেনের প্রভাবে উপকূলজুড়ে প্রবল ঝড়ো হাওয়ায় গাছচাপা পড়ে বৃহস্পতিবার চার জেলায় অন্তত চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। অসংখ্য গাছপালা উপড়ে পড়ার পাশাপাশি আংশিক বা সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে বহু বসতঘর।

কোমেন উপকূল পার হওয়ার সময় দ্বীপ ও চরগুলো প্লাবিত হয়েছে ৩-৫ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে।

ঝড় এগিয়ে আসায় বুধবার রাত থেকেই কক্সবাজার বিমানবন্দরের কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। চট্টগ্রাম বন্দরে তিন নম্বর অ্যালার্ট জারি করার পাশাপাশি পণ্য খালাস সীমিত করা হয়।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বুধবার রাতে সংকেত বাড়িয়ে ৭ নম্বরে নিয়ে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সারা দেশে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রেখেছিল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল কর্তৃপক্ষ- বিআইডব্লিটিএ।

কোমেন রাত ৯টার পর উপকূল অতিক্রম শুরু করে সকাল ৬টার দিকে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার পর সেই বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হয়েছে বলে ঢাকা সদরঘাটে বিআইডব্লিটিএ’র ট্রাফিক পরিদর্শক সৈয়দ মাহবুবুর রহমান মাহফুজ জানান।

নদীপথে নৌ চলাচলে এখন আর বাধা না থাকলেও সাগরগামী মাছ ধরার নৌকা, ট্রলার ও জাহাজকে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।