September 28, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

মাতৃদুগ্ধ পান করল বুলেটবিদ্ধ সেই শিশু

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ মাগুরার সেই শিশুর বয়স আজ ১০ দিন। জন্মের দশম দিনে প্রথমবারের মতো মাতৃদুগ্ধ পান করলো শিশুটি।

অস্ত্রোপচারের পর ৭২ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের স্পেশাল কেয়ার অব বেবি ইউনিটে (স্ক্যাবো) নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শিশুটির অবস্থা এখন স্থিতিশীল। তবে এখনই নিশ্চিত কিছু বলা যাচ্ছে না।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকায় নিয়ে আসার পর শিশুটিকে স্ক্যাবো-তে পাঠানো হয়। সেখানে তাকে ৭২ ঘণ্টা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখেন চিকিৎসকরা। তার মা’ও একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শনিবার বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ দিবসে জন্ডিসে আক্রান্ত দুর্বল শিশুটিকে বিকল্প উপায়ে তার মায়ের দুধ পান করানো হয়েছে।

ঢামেক এর সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. খাজা আব্দুল গফুর গণমাধ্যমকে বলেন, ওর অবস্থা আগের মতোই অর্থাৎ স্থিতিশীল আছে। তবে প্রি-ম্যাচিউর শিশুটি গুলিতে জখম এবং জন্ডিস আক্রান্ত হওয়ায় এখনও তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। বিকল্প উপায়ে ওর মায়ের দুধ সংগ্রহ করে শিশুটিকে পান করানো হয়েছে। শিশুটির জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।

গুলির আঘাতে শিশুটির ক্ষতিগ্রস্থ ডান চোখ নিয়ে চিকিৎসকরা শঙ্কিত। হাতের কবজিতেও জখম রয়েছে তার।

উল্লেখ্য, গত ২৩ জুলাই ২০১৫ বৃহস্পতিবার বিকালে মাগুরা শহরের দোয়ারপাড় এলাকায় ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে মায়ের পেটেই রক্তাক্ত হন শিশুটি। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী অস্ত্রোপচারের পর মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ শিশুটি ভূমিষ্ট হয়।