June 23, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

শুনানিতে উপস্থিত হতে আশরাফ-লতিফকে ইসির চিঠি

নিজস্ব প্রতিবেদক : এমপি পদ বাতিল সংক্রান্ত শুনানিতে উপস্থিত থাকার জন্য সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বক্তব্য শুনতে তাকে উপস্থিত হওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

আগামী ২৩ আগস্ট রোববার ইসিতে তাদের উপস্থিত হতে বলা হয়। ওইদিন বেলা ১১টায় ইসি সচিবালয়ের সভাকক্ষে তাদের দু’জনকে নিয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

ইসির বিশেষ দূত মারফত রোববার তাদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। ইসির উপ-সচিব (আইন শাখার)  সেলিম মিয়া চিঠিতে স্বাক্ষর করেন।

এর আগে, নিজ নিজ অবস্থানের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরতে বলা হলে ইসিতে চিঠি দিয়ে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরেন লতিফ সিদ্দিকী ও সৈয়দ আশরাফ। লতিফ সিদ্দিকী তার চিঠিতে দাবি করেন, সরকারি সফরে হজ নিয়ে যে বক্তব্য তিনি দিয়েছেন, তা দলীয় নেতা হিসেবে নয় তাই তাকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত আওয়ামী লীগের ভুল ছিল। পরবর্তী সময়ে এ সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে নেওয়া অন্য সিদ্ধান্তগুলোও সঠিক ছিল না।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফও একই দিনে ইসিতে দেওয়া চিঠিতে যুক্তি দেখিয়ে বলেন, দল থেকে বহিস্কার করায় লতিফ সিদ্দিকী আওয়ামী লীগের কেউ নন, তাই তার সংসদ সদস্য পদে থাকারও  কোনো আইনগত অধিকার নেই।

গত ১৩ জুলাই লতিফ সিদ্দিকীর সাংসদ পদ বাতিলের জন্য জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীকে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে চিঠি দেন দলটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। এরপর লতিফ সিদ্দিকীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদকে চিঠি দেন স্পিকার। ওই চিঠির সঙ্গে সৈয়দ আশরাফের চিঠিটিও যুক্ত করেন স্পিকার।

পবিত্র হজ নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় দলীয় সদস্য পদ ও মন্ত্রিত্ব হারানোর পর এবার সংসদ সদস্য পদও হারাতে বসেছেন আবদুল লতিফ সিদ্দিকী। এ ক্ষেত্রে শুনানি করেই তার ভাগ্য নির্ধারণ করতে যাচ্ছে ইসি।