December 6, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

হরতাল-অবরোধ ও সৃজনশীল পদ্ধতি ফলাফলে প্রভাব ফেলেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : হরতাল-অবরোধে অস্বাভাবিক পরিস্থিতিসহ ২৩টি বিষয়ে সৃজনশীল পদ্ধতির উন্নতির কারণে এবার এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলে কিছুটা প্রভাব পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ।

সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে রোববার দুপুরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “১ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া হরতাল অবরোধে ভয়াবহ পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ সাধারণ মানুষ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও ক্লাস চালু রাখা কষ্টকর হয়েছে। পেট্রোলবোমার ভয়াবহ ও অস্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ক্লাসে যাওয়া, পরীক্ষা দিতে পারবে কিনা এমন অনিশ্চয়তায় শিক্ষার্থীরা এইচএসসি পরীক্ষার প্রাকপ্রস্তুতি ভালোভাবে নিতে পারেনি। এ বিষয়টি এবারের ফলাফলে প্রভাব ফেলেছে।”

মন্ত্রী বলেন, “এবার ২৩টি বিষয়ে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে এই সৃজনশীল পদ্ধতির উন্নতি ঘটানো হয়েছে। শিক্ষার্থীদের মাঝে এর কিছুটা প্রভাব পড়েছে। ভুল-ত্রুটি থাকতে পারে, স্বীকার করছি। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি আস্তে আস্তে উন্নতি করতে। পর্যায়ক্রমে উন্নতি হচ্ছেও।”

প্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, “এত সমস্যার পরও সুসংবাদ আছে। দীর্ঘদিন ধরে বিজ্ঞানে পিছিয়ে পড়ার যে অপবাদ ছিল তাতে আমরা ইতিবাচক ফলাফল আনতে সক্ষম হয়েছি। এবার পরীক্ষায় মোট পাসের হার যেখানে ৬৯.৬০ শতাংশ, সেখানে বিজ্ঞানে পাসের হার ৭৭.৬৬ শতাংশ। একইভাবে এবার মোট জিপিএ-৫ যেখানে ৪২ হাজার ৮৯৪ জন, সেখানে বিজ্ঞানের ২৬ হাজার ৫৬ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে।

এবারের পরীক্ষায় কারিগরি শিক্ষায় উন্নতি হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষাসচিব নজরুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের ডিজি প্রফেসর ফাহিমা খাতুন, শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।