December 6, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

নিরামিষ খাবার ওজন কমাতে সাহায্য করে

আপনি যদি সাইজ জিরো ফিগার হবার চিন্তা করে থাকেন, তাহলে একটি নিরামিষ ডায়েট অনুসরণ করুন। যেখানে প্রাণীদের কোন পণ্য থাকবে না। ওজন কমানোর জন্য এটি সবচেয়ে ভাল ডায়েট পরিকল্পনা। একটি গবেষণায় তাই প্রতীয়মান

তাইওয়ানের ই-ডা হাসপাতালের গবেষক রুয়ি-হুয়াং বলেছেন, “নিরামিষ খাবার অর্থাৎ শাকসবজির ডায়েট অন্যান্য সকল ডায়েটের তুলনায় বেশি কার্যকরী”।

গবেষণায় ১২টি বিভিন্ন ধরণের ডায়েট পরিকল্পনা অনুসরণ করেন, সেজন্য ১,১৫১ জন মানুষকে সেই ডায়েট পরিকল্পনা অনুযায়ী পরিচালনা করা হয়। তাদেরকে ৯ থেকে ৭৪ সপ্তাহ পর্যন্ত পর্যবেক্ষণ করা হয়।

পরবর্তীতে দেখা যায়, যারা শুধু শাকসবজি খেয়ে ডায়েট কন্ট্রোল করেছে তাদের ওজন সবচেয়ে বেশি কমেছে। তাদের তুলনায় যারা মাংস খেয়েছেন এবং অন্যান্য প্রাণীজ পণ্য খেয়েছেন।

যারা শুধু সবজি জাতীয় খাবার খায়, তাদের ওজন আরও বেশি কমেছে। তাদের ওজন অন্যান্যদের তুলনায় ২.৫২ কেজি বেশি কমেছে। যারা সবজি জাতীয় খাবারের পাশাপাশি ডিম ও দুগ্ধজাত পণ্য খেয়েছেন, তাদের ওজন অন্যান্যদের তুলনায় ১.৪৮ কেজি বেশি কমেছে।

হুয়াং এর মতে, সমগ্র শস্য , ফল ও সবজি নিরামিষ খাদ্য হবার ফলে আমাদের ডায়েটে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন পারে।

গোটা শস্য পণ্যে এবং সবজিতে সাধারণত কম গ্লাইকেমিক সূচক মান আছে এবং এরা রক্তে শর্করার মাত্রা গজাল সৃষ্টি করে না। ফল প্রাকৃতিকভাবে ফাইবার, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, খনিজ পদার্থ এবং প্রতিরক্ষামূলক রাসায়নিক পদার্থে সমৃদ্ধ। যা উদ্ভিদের মধ্যে প্রথম থেকেই বিদ্যামান থাকে।

গোটা শস্য পণ্যে দ্রবণীয় ফাইবার থাকে। এই ধরনের তথাকথিত ভাল ফাইবার খাদ্য পেটের ভাল হজম নিশ্চিত করে। এরা খাদ্যের গতি বিলম্ব করতে সাহায্য করে।

গবেষকরা দেখতে পেয়েছেন, যারা নিরামিষ জাতীয় খাবার গ্রহণ করেন, তাদের প্রতিদিনের ক্যালোরির পরিমাণ কম। আমাদের দৈনিক যেটুকু ক্যালোরি প্রয়োজন তার তুলনায় নিরামিষ খাদ্যে ক্যালোরির পরিমাণ কম। তাই, নিরামিষ খাবারে দ্রুত ওজন কমে যায়।

সূত্র: জি নিউজ।