September 19, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

যে খেলা থেকে সরে এসেছে পিসিবি

ক্রীড়া ডেস্ক : দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা থেকে সরে এসেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলার জন্য পাকিস্তানের দেয়া কমলা রংয়ের বল ব্যবহারের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় নিজেদের পরিকল্পনা বাদ দেয় পিসিবি।

পিসিবির একটি সূত্র ভারতীয় বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে (পিটিআই) জানান, ঘরোয়া ক্রিকেটে গোলাপি এবং কমলা রংয়ের বল দিয়ে পাকিস্তান অনেক পরীক্ষা চালিয়েছে এবং টেস্ট ক্রিকেটে তারা কমলা রংয়ের বল ব্যবহারের প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু আইসিসি তা অনুমোদন দেয়নি।

সুত্রটি জানায়, ‘নিজস্ব পরীক্ষা করার পর আইসিসি দেখেছে দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচের জন্য গোলাপি রংয়ের বল অনেক বেশি ব্যবহার যোগ্য।’

তিনি জানান, পাকিস্তানই সবার আগে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে দিবা-রাত্রির ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করে।
তিনি বলেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথম শ্রেণীর কায়েদ-এ আজম ট্রফিতে পাঁচ দিনের দুটি ফাইনালে আমরা ফ্লাড লাইট ব্যবহার করেছি এবং কমলা রংয়ের বল দিয়ে পরীক্ষা করে সফল হয়েছি।’

তিনি আরো জানান, ‘সংযুক্ত আরব আমিরাতে ২০১২/১৩ মৌসুমে শ্রীলংকার বিপক্ষে একটি আমরা একটি দিবা-রাত্রির ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু শ্রীলংকা বোর্ড সে প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। আইসিসির সিদ্ধান্তের পর আমাদের পদক্ষেপ ব্যর্থ হয়েছে বলে আমরা মনে করছি এবং এ কারণে আর পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানোর পরিকল্পনা আমাদের নেই।’

এ কারণেই পাকিস্তান আগামী শীতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোন দিবা-রাত্রির ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাব দেয়নি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘তবে এখন এ বছরই অস্ট্রেলিয়াতে একটি দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সেটা কেমন হয় দেখব এবং এরপর আমরা প্রথম শ্রেণীর দিবা-রাত্রির ম্যাচ শুরু করতে পারি। হতে পারে আগামী বছর আমরা দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করতে পারি।’
সংযুক্ত আরব আমিরাত ও দক্ষিণ এশিয়ার ভেন্যুগুলো দিবা-রাত্রির টেস্টের জন্য আদর্শ বলে মনে করছে পাকিস্তান। তাই পিসিবি এটার পক্ষে ছিল বলেও জানান তিনি।