October 23, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

হাসিখুশি থাকতে কে না পছন্দ করেন

হাসিখুশি থাকতে কে না পছন্দ করেন। বিশেষ করে নানা কাজের চাপের মধ্যেও পুরো দিন নিজের মনটাকে খুশি রাখতে চান সকলেই। কেউ কেউ পারেন, আবার কেউ কেউ পারেন না। কাজের চাপে কিংবা নিজের কিছু অভ্যাসের কারনে সকাল থেকেই মন-মেজাজ খারাপ করে ঘুরতে থাকেন।

এতে করে নিজের তো দিন খারাপ হয়ই এর পাশাপাশি যারা তার আসেপাশে থাকেন তাদের উপরেও এর প্রভাব পড়ে। কিন্তু সকালের কিছু ছোট্ট কাজ পুরো দিনটি জুড়ে আপনাকে রাখতে পারে হাসিখুশি।

চলুন তাহলে  জেনে নিই সকালে উঠে কি কি কাজ করে নিজেকে হাসিখুশি রাখতে পারেন সে সম্পর্কে।

১. ভোরে ঘুম থেকে উঠুন:
একটু সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠার অভ্যাস পুরো দিন দেহকে রাখবে সতেজ এবং মন থাকবে ফ্রেশ। যখন ঘুম থেকে উঠে তাড়াহুড়ো করে তৈরি হওয়ার ঝামেলা থাকবে না তখন কাজে ভুল কম হবে। এবং আপনাআপনিই মন থাকবে ভালো পুরো দিন।

২. ঘুম থেকে উঠেই নিজেকে আয়নায় দেখুন:
সাইকোলজিস্টদের মতে সকালে ঘুম থেকে উঠার ব্যাপারটি আমাদের মনের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলে যার কারনে সকালটি খারাপ যায়, সেই সাথে পুরো দিনটি। এই সময় মানুষ যদি নিজের পছন্দের কিছু দেখেন তবে তার মনের বিরূপ প্রভাব কেটে যায়। তাই ঘুম থেকে উঠেই নিজেকে দেখে নিন আয়নায়, অথবা পছন্দের মানুষটির মুখ দেখে দিন শুরু করুন। পুরো দিনই কাটবে ভালো।

৩. খালি পেটে পান করে নিন ১ গ্লাস পানি:
সারারাত ঘুমের পর আমাদের মস্তিস্ক হুট করে জেগে সঠিকভাবে কাজ করে না। তাই কাজে ভুল হয় এবং এতে করে মন মেজাজ খারাপ হয়। এই সমস্যা সমাধান করবে পানি। ঘুম থেকে উঠে ১ গ্লাস পানি পান করলে মস্তিস্ক এবং দেহের কোষ সতেজ হবে।

৪. নিজের পুরো দিনের প্ল্যান তৈরি করে নিন গোসলের সময়ে:
যখন আপনার সামনে একটি প্ল্যান ছাড়া পুরো দিন পড়ে থাকবে তখন স্বাভাবিকভাবেই মেজাজ একটু খিচড়ে থাকবে। তাই নিজেকে শাওয়ারের নিচে রেখে পুরো দিনের প্ল্যান ঠিক করে নিন। দেখবেন দিনই মন মেজাজ থাকবে ফুরফুরে।

৫. আপন মানুষগুলোকে সকালেই কিছুটা সময় দিন:
সকালে উঠে দেখুন তো আপনার আপন মানুষগুলো কি করছেন, যদি তারা কোনো কাজে থাকেন তাহলে সে কাজে তাকে সাহায্য করুন অথবা পরিবারের আপন মানুষগুলোকে একটু সময় দিন সকালেই। এতে করেও পুরো দিন থাকতে পারবেন হাসি খুশি।

৬. নিজের পছন্দ অনুযায়ী পোশাক পরে সময় নিয়ে তৈরি হোন:
নিজেকে আয়নায় দেখতে ভালো লাগলে আপনাআপনিই আত্মবিশ্বাস অনেক বেশি বেড়ে যায়। এতে করে মনও হয়ে উঠে প্রফুল্ল। এই কাজটিই করুন। নিজের মনের মতো করে তৈরি হয়ে নিন। এতে পুরো দিন ভালোই কাটবে।

৭. নিজকে অনুপ্রেরণা মূলক কথা বলুন নিজে:
প্রতিদিন একই কাজে যাওয়া সত্যিই অনেক বোরিং। কিন্তু সেই কাজটির জন্য নিজেকে প্রতিদিন একেকভাবে প্রেরনা যোগাতে পারলে বোরিং কাজটিই ভালো লাগবে। তাই সকালে কাজে যাওয়ার আগে নিজেকে দেখে বলুন প্রেরনামূলক কোনো বাক্য।

৮. নিজের পছন্দের গান গুণগুণ করুন:
পছন্দের গান যখন আমরা গুণগুণ করি বা শুনি তখন আমাদেওর মস্তিস্কে ভালোলাগার হরমোন উৎপন্ন হয়। এতে করে মন থাকে ভালো। দিন কাটে হাসিখুশি।