June 17, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

সুস্থ নিয়মিত যৌন জীবনের জন্য

ডেস্ক প্রতিবেদন : মেনোপোজ বা মাসিক পরর্বতী যন্ত্রনাদায়ক যৌনমিলন ও যোনীর শুষ্কতা রোধে মহিলারা ভেজাইনাল ইস্ট্রোজেন ব্যবহারের দিকে ঝুঁকছেন। এমনকি অন্যধরণের হরমোন থেরাপি চলাকানীনও তাঁরা ভেজাইনাল ইস্ট্রোজেন ব্যবহার করছেন। জানাচ্ছে সাম্প্রতিক গবেষণা।
যে মহিলারা সিস্টেমিক হরমোন থেরাপি ব্যবহার করেন না কিন্তু ভেজাইনাল ইস্ট্রোজেন ব্যবহার করেন তাঁদের যৌনজীবনের মান, যারা এটি ব্যবহার করেন না, তাদের তুলনায় ভাল হয়।
”ইস্ট্রোজেন যোনীর মসৃণতা বজায় রাখে।” জানিয়েছেন নর্থ আমেরিকান মেনোপজ সোসাইটির জার্নালের প্রতিষ্ঠাতা ও এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উলফ উটিয়ান।
ইস্ট্রোজেন একদিকে যেমন লুব্রিকেসনে সহয়তা করে অন্যদিকে ইউরিনারি ট্র্যাক ইনফেকশন রোধে সাহায্য করে।
উটিয়ানের মতে এই জন্য মহিলারা মেনোপজের পর ভেজাইনাল ইস্ট্রোজেন ব্যবহারে উৎসাহী হয়ে পড়ছেন।
নির্দিষ্ট বয়সের পর মহিলাদের ইউরোজেনিটাল সমস্যাগুলির দীর্ঘ মেয়াদি সমাধানের ইস্ট্রোজেনের কার্যকারিতা সন্ধানের জন্য এই গবেষণাটির উদ্যোগ নেওয়া হয়।
অন্যকোনও ওষুধ ছাড়াই ভেজাইনাল ইস্ট্রোজেন ব্যবহার করে অনেক বেশি সুস্থ থাকেন মহিলারা। মেনোপজের পর যোনীতে যে শুষ্কতা সৃষ্টি হয় তার সঙ্গেই যন্ত্রণাদায়ক মূত্রত্যাগ, ডিসচার্জ এবং ইচিংয়ের মত সমস্যা।
মেনোপজের পর ইস্ট্রোজেনের পর যোনীর দেওয়াল মোটা ভালভোভেজাইনাল অ্যাট্রপি)হয়ে যায়। যার ফলে এই ধরণের সমস্যাগুলি দেখা যায়।
সিস্টেমিক হরমোন থেরাপির বদলে ভেজাইনাল ইস্ট্রোজেনের ব্যবহার বিভিন্ন শারীরিক অসুস্থতাও হ্রাস করে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।