June 23, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

যশোরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা: আটক ১

নিজস্ব প্রতিবেদক : সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি কোপে আবু হানিফ (২৫) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত ১০টার দিকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

আবু হানিফ শহরের পূর্ববারান্দিপাড়া নাথপাড়া এলাকার বশিরউদ্দিনের ছেলে।

হানিফের মা আছুরা বেগম বলেন, “শনিবার রাত ১০টার দিকে হানিফ এলাকার বাচ্চুর ছেলে শাওনের বাড়ির সামনের চায়ের দোকানে বসে চা খাচ্ছিল। এ সময় শাওন, তার ভাই নয়ন, মকছেদের ছেলে আরিফ, মামুন, ইউসুফের ছেলে বুলু, ওহাবের ছেলে রনি, একই এলাকার সাঈদ, ফিদু, মুন্নাসহ দশ-বারো জন তাকে ধাওয়া করে।”

তিনি আরো বলেন, “শাওন দৌড়ে হানিফদের বাড়ির পাশে বৃদ্ধ মোমেনা বেগমের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। মোমেনা সে সময় এশার নামাজ আদায় করছিলেন। সন্ত্রাসীরা ঘরে ঢুকে শাওনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ সময় বাধা দিতে এলে মোমেনার এক হাত ভেঙে যায়।”

আছুরা বেগম বলেন, “আহত অবস্থায় হানিফকে ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করলে সকাল ১০টার দিকে সে মারা যায়। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাওনের স্ত্রী ইরানিকে আটক করেছে।”

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, শাওনের বোন বন্যাকে উত্যক্ত করতো হানিফ। এ কারণে শাওন দলবল নিয়ে হানিফকে কুপিয়ে হত্যা করে।

হানিফের বোন রাজিয়া সুলতানা বলেন, “আমাদের পাড়ার কুটির কাছে বিহারী কলোনির মফিজ টাকা পেত। এ ঘটনা নিয়ে শুক্রবার গণ্ডগোল হয়। বিহারী কলোনির এক যুবক আমাদের পাড়ায় এলে হানিফ তার সাথে কথা বলে। এ নিয়ে হানিফকে সন্দেহ করে শাওন ও তার সঙ্গীরা।”

তিনি আরো বলেন, “এরপর রাতে শাওন চায়ের দোকানে বসে চা খাচ্ছিল। এসময় সন্ত্রাসীরা তাকে তাড়া করে মোমেনার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। এর আগে মেরে শাওনের এক পা ভেঙে দিয়েছিল হানিফ।”

যশোর কোতয়ালি থানার ওসি সিকদার আক্কাছ আলী বলেন, “হত্যাকাণ্ডের ঘটনা শুনেছি। তবে কী কারণে এবং কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা উদ্ঘাটনে পুলিশ তৎপর রয়েছে।”