September 28, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

"স্বার্থান্বেষী মহলের ষড়যন্ত্র শুরুর আলামত দেখা যাচ্ছে"

নাটোর প্রতিনিধি : প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, “আমি দায়িত্ব নেয়ার পর আদালত প্রাঙ্গণে মামলা নিষ্পত্তির যে গতিশীলতা এসেছে এবং প্রাণচাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে এতে একটি স্বার্থান্বেষী মহলের ষড়যন্ত্র শুরুর আলামত দেখা যাচ্ছে।”

সোমবার দুপুরে নাটোর জেলা আইনজীবী সমিতির সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই আশঙ্কার কথা বলেন প্রধান বিচারপতি।

প্রধান বিচারপতি বলেন, বিভিন্ন আদালতে বিচারের অপেক্ষায় থাকা ৩০ লাখ মামলার মধ্যে বিগত ছয় মাসে মামলা নিষ্পত্তির হার বেড়েছে ২৬ থেকে ৪০ শতাংশ। আশা করি, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে ৫০ ভাগ মামলা নিষ্পত্তি সম্ভব হবে এবং এক বছরের মধ্যে বাকি ৫০ ভাগ মামলার জট কমে যাবে।

এ সময় নতুন করে প্রতি মাসে গড়ে  লক্ষাধিক মামলা যোগ হচ্ছে বলে জানান প্রধান বিচারপতি।

মামলার জট নিরসনের জন্য আইনজীবীদের সহযোগিতা কামনা করে প্রধান বিচারপতি বলেন, “আপনারা সময়মতো আদালতে আসলে মামলার বিচারকাজে গতিশীলতা আসবে।” প্রতিটি আদালতের বিচারককে সকাল সাড়ে নয়টার মধ্যে এজলাসে উপস্থিত হওয়া এবং সময়ের পূর্ণাঙ্গ ব্যবহারের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

মধ্যাহ্নবিরতির পর আদালতে বিচার কার্যক্রমে অংশগ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে প্রধান বিচারপতি বলেন, “জুনিয়র আইনজীবীদের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা ও প্রশিক্ষণ দেয়ার মাধ্যমে তাদের যোগ্য করে গড়ে তোলার দায়িত্ব আপনাদের পালন করতে হবে।”

এস কে সিনহা বলেন, “নতুন প্রজন্মের জন্য আইনের শাসন ও ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে চাই। এই লক্ষ্যে বিচার বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে।”

নাটোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট রুহুল আমিন তালুকদার টগরের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন নাটোর জেলা ও দায়রা জজ লুৎফা বেগম, জজ কোর্টের পিপি সিরাজুল ইসলাম, সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুশান্ত ঘোষ, অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন শওকত প্রমুখ।

আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল সৈয়দ মো. আমিরুল ইসলাম, নাটোরের জেলা প্রশাসক মো. মশিউর রহমান, জেলা আদালতের বিচারক ও আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।