September 17, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

পুলিশকে সংযত রেখেছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, পুলিশকে আমরা সংযত রেখেছি। আসামি ধরতে গেলে ক্রসফায়ারের মতো দু-একটা ঘটনা ঘটতেই পারে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিজের মতো করে কাজ করছে।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের একথা বলেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদকে গ্রেফতার, সাংবদিক প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে মামলা এবং মাগুরায় আওয়ামী লীগ সমর্থক দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তঃসত্ত্বা নারী গুলিবিদ্ধ হওয়ার মামলার অন্যতম প্রধান আসামি মেহেদী হাসান আজিবর ওরফে অজিবর শেখ ক্রসফায়ারে নিহত হওয়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, শওকত মাহমুদের নামে অনেকগুলো মামলা ছিল। এটাই তাকে গ্রেফতারের মূল কারণ। এ ছাড়া অন্যকোনও কারণ নেই। উল্লেখ্য, আজ মঙ্গলবার সকালে আটক হওয়া শওকত মাহমুদ আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের সদস্য সচিব হিসেবে কাজ করছিলেন। এ ছাড়া তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

সাংবাদিক প্রবীর সিকদারকে আটক ও তথ্যপ্রযুক্তি আইনে তার বিরুদ্ধে মামলার বিষয়েও জানতে চান সাংবাদিকরা। এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আইন অনুযায়ী তার বিচার হবে। ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী (এলজিআরডি) খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগে তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় তাকে রবিবার গ্রেফতার করা হয়।

তবে ফেসবুক স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে গ্রেফতারের ঘটনায় মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ন হয়েছে কিনা- সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘এই ঘটনা মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় কোনও বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। তিনি ফেসবুক স্ট্যাটাসে অভিযোগ করেছেন পুলিশ তার জিডি নেয়নি। তবে তিনি পুলিশের আরও ঊর্ধ্বতন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলতে পারতেন। লিখিত অভিযোগ করতে পারতেন।’

মাগুরায় মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে জেলা শহরের দোয়ারপাড় এলাকায় ক্রসফায়ারে নিহত হন আজিবর শেখ। এ ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, ‘মাগুরায় ক্রসফায়ার না হলে সরকারেরই লাভ হতো। তার সূত্র ধরে জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতার করা যেত। পুলিশকে আমরা সংযত রেখেছি। তবে আসামি ধরতে গেলে এরকম দুএকটা ঘটনা ঘটবেই। অপরাধী ধরার ক্ষেত্রে সরকারি দল বিরোধী দল কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’