January 28, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

সাপের কামড়ে দুই মাসে নিহত ৯ জন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার দুধসর ইউনিয়নে ভাটই উত্তরপাড়া গ্রামে গত দুই মাসে সাপের কামড়ে অন্তত ৯ জন মারা গেছেন। ফলে সাপের উপদ্রবে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন এলাকাবাসী।

জানা গেছে, গত দুই মাসে এ গ্রামের অন্তত ৯ জন বিষধর সাপের কামড়ে মারা গেছেন। এছাড়া সাপের কামড়ে অন্তত দেড় শতাধিক ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন।  গ্রাম থেকে অন্তত দুই শতাধিক শাখা পাটি কানন ও শঙ্খ গোখরা বিষধর সাপ মেরেছে গ্রামবাসী।

সরেজমিনে দেখা যায়, সাপ আতঙ্কে এ গ্রামের নারীরা নির্ঘুম রাত পার করছেন এবং পুরুষেরা হয়েছেন ঘর ছাড়া। অনেক পুরুষই রাত্রী যাপন করছেন মসজিদে। খবর পেয়ে গত সোমবার পাঁচ সদস্যের একটি মেডিকেল টিম গ্রামটি পরিদর্শন করেছেন।

ভাটই উত্তরপাড়া গ্রামের আশরাফুল জোয়ার্দ্দার ও আজিজুল ইসলাম জানান, ভাটই উত্তরপাড়া গ্রামে সাপের উপদ্রব মারাত্মকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। রাতে সাপের ভয়ে কেউ ঘরের বাইরে বের হতে পারছে না। ঘরে ঘুমোতে পারছে না। সাপ আতঙ্কে মানুষ মাঠে কাজ করতে যেতে ভয় পাচ্ছে। গত বছরের মতো এবারও ঠিক একই সময়ে সাপের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। এলাকায় শাখা পাটি কানন ও গোখরা নামের এই দুই জাতের বিষধর সাপ বেশি দেখা যাচ্ছে।

গত দুই মাসে সাপে কেটে যারা মারা গেছেন, সবেদ আলির ছেলে সুমন (১৮), সমির উদ্দিনের মেয়ে সেতু (১৩), মফিরুলের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (২৫), পাবনার নূর নবী নামের এক কৃষি শ্রমিক, মামা বাড়ি বেড়াতে এসে মারা যায় কোহিনুর বেগম, পরিমলের স্ত্রী সুন্দরী (৬২), মতিয়ার রহমানের মেয়ে সাথী (১০), আজম আলীর ছেলে সুজন (১৮) ও গনজের আলি (৪৫)।

এছাড়া সাপের কামড়ে অন্তত দেড় শতাধিক মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। হাসপাতাল ও ওঝা-কবিরাজের কাছে চিকিৎসা নেয়ার পর তারা সুস্থ হয় বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন ডা. আবদুস সালাম জানান, বিষয়টি আমি জানতে পেরে সোমবার পাঁচ সদস্যের একটি মেডিকেল টিমকে ওই গ্রাম পরিদর্শনে পাঠিয়েছিলাম। এছাড়া বিষয়টি উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকেও জানিয়েছি।