September 29, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

সুরাইয়ার আজ বাড়ি ফেরার দিন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মাগুরায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ শিশু সুরাইয়া বেগমের আজ বাড়িতে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে। বাবা-মায়ের সঙ্গে বাড়ি ফিরবে সে। সুরাইয়া ও তার মা বর্তমানে সম্পূর্ণ সুস্থ। তাদের বাড়ি ফিরতে আর কোনও বাধা নেই বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আজ বৃহস্পতিবার যেকোনও সময় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের ছাড়পত্র দিতে পারেন। বুধবার রাতে এ বিষয়ে ঢামেকের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। ছাড়পত্র দেওয়ার আগে তাদের আবারও পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হবে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিমের উপিস্থিতিতে মা নাজমা খাতুনসহ সুরাইয়া বেগমকে ছাড়পত্র দেওয়া হবে। মা ও শিশু উভয়েই ভালো আছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) খাজা আবদুল গফুর  এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

২৩ জুলাই শহরের দোয়ার পাড় কারিগরপাড়ায় ছাত্রলীগের দুই পক্ষের গোলাগুলির সময় আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা নাজমা খাতুন (৩৫) গুলিবিদ্ধ হন। মাগুরা সদর হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ওই গৃহবধূর পেট থেকে গুলিবিদ্ধ কন্যাশিশুটিকে বের করা হয়। গুলি পেটের শিশুকে এফোঁড়-ওফোঁড় করে ফেলে। মা ও শিশু এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ওই ঘটনায় নাজমার চাচাশ্বশুর মমিন ভুঁইয়া (৬৫) মারা যান।

এ ঘটনায় নিহত মমিনের পুত্র রুবেল ২৬ জুলাই মাগুরা সদর থানায় ১৬ জনের নামে হত্যাসহ বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলার ৩ নম্বর আসামি মেহেদী হাসান ওরফে আজিবর শেখ পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। আজিবরের আগ্নেয়াস্ত্রের ছোঁড়া গুলিতে বৃদ্ধ মমিন ভূইয়া নিহত হয়েছেন।

এ মামলার প্রধান আসামি জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সেন সুমনের ৭ দিনের রিমান্ড চলছে। বর্তমানে তিনি মাগুরা ডিবি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। ঢাকার কল্যাণপুর থেকে গত ২ আগস্ট সেন সুমনকে গ্রেফতার করা হয়।