July 1, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

মাগুরায় সাড়ে ৩ কোটি টাকার সোনাসহ আটক ৩

মাগুরা  প্রতিনিধি : মাগুরায় সাড়ে তিন কোটি টাকা মূল্যের ৮০টি সোনার বারসহ (৮ কেজি) তিন পাচারকারী আটক হয়েছে।

সদর থানা পুলিশ বুধবার ভোরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মাগুরা শহরের পিটিআই স্কুলের সামনে তিন বাসযাত্রীর দেহ তল্লাশি করে এসব সোনা উদ্ধার করে।

সোনার বারগুলো কোমরে বেল্টের নিচে ও শরীরের সঙ্গে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরায় নিয়ে যাচ্ছিল পাচারকারীরা।

আটক তিন পাচারকারী হচ্ছে মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওর থানার মাশাইল গ্রামের মৃত সন্তোষ শীলের ছেলে সুবোধ শীল (৩২), মানিকগঞ্জ সদরের ঘোনা গ্রামের সুখ শীলের ছেলে নিরঞ্জন শীল (৩৪) ও ঢাকা জেলার সাভার থানার বনগাও গ্রামের চিত্তরঞ্জন শীলের ছেলে সুমন শীল (৩০)।

সদর থানার ওসি মুন্সি আছাদুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোর ৫টার দিকে সদর থানা পুলিশ মাগুরা শহরের পিটিআই স্কুলের সামনে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরাগামী সংগ্রাম পরিবহনের একটি বাসের গতিরোধ করে। এ সময় সুবোধ, নিরঞ্জন ও সুমন নামে তিন বাস যাত্রীর দেহ তল্লাশি করে প্রতিটি ১০০ গ্রাম ওজনের ৮০টি সোনার বার জব্দ করা হয়, যার মোট ওজন আট কেজি। সোনার বারগুলো কোমরে বেল্টের নিচে জিন্সের প্যান্টে ভরে ও জাঙ্গিয়ার মধ্যে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরায় নিয়ে যাচ্ছিল পাচারকারীরা। প্রতিটি বারের গায়ে দুবাই লেখা। জব্দ করা সোনার বাজার মূল্যো প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকা।

পচারকারীরা জানিয়েছেন, রাজধানীর বায়তুল মোকারম থেকে দোহার নবাবগঞ্জ এলাকার মরু নামে এক ব্যক্তি সোনার বারগুলো সাতক্ষীরার দাদু নামে একজনের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য তাদের তিন জনের সঙ্গে ১৫ হাজার টাকায় চুক্তি করেছিলেন। এর আগেও তারা একাধিকবার ঢাকা থেকে সাতক্ষীরায় এ ধরনের সোনার চালান নিয়ে গেছেন বলে পুলিশকে কাছে জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় মাগুরা সদর থানায় মামলা হয়েছে। গোটা চক্রকে সনাক্ত করতে আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।