July 1, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

এবারও কোরবানির পশুর চামড়ার দাম কমল

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোরবানির পশুর চামড়া কেনার জন্য এবারের নির্ধারিত দাম ঘোষণা করেছে চামড়াসংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের তিনটি সংগঠন। তবে এবারও নির্ধারিত দাম গত বারের চেয়ে কম।

ঘোষিত দাম অনুযায়ী, এবার ঢাকায় কোরবানি হওয়া গরুর প্রতি বর্গফুট লবণযুক্ত চামড়া ৫০-৫৫ টাকা। ঢাকার বাইরে গরুর চামড়া ৪০-৪৫ টাকা। আর প্রতি বর্গফুট খাসির চামড়া ২০-২২ টাকা, বকরির চামড়া ১৫-১৭ টাকা।
চামড়াসংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের সংগঠন তিনটি আজ বুধবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে এক রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করে কোরবানির পশুর চামড়ার এই দাম ঘোষণা করে।

সংগঠন তিনটি হলো—বাংলাদেশ প্রস্তুত চামড়া, চামড়া পণ্য ও জুতা রপ্তানিকারক সমিতি (বিএফএলএলএফইএ), বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএ) ও বাংলাদেশ হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন। এর মধ্যে প্রথম দুটি ট্যানারি মালিকদের এবং অন্যটি কাঁচা চামড়ার আড়তদারদের সংগঠন।

এই তিন সংগঠন গত বছরও কোরবানির পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করেছিল। গত বছর ঢাকায় গরুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল ৭০-৭৫ টাকা, ঢাকার বাইরে ৬০-৬৫ টাকা। খাসির চামড়া ৩০-৩৫ টাকা এবং বকরির চামড়া ২৫-৩০ টাকা। এবার প্রতিটি ক্ষেত্রেই চামড়ার দাম গত বছরের চেয়ে কমিয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে। এর পেছনে বিশ্ববাজারে চামড়ার দাম পড়ে যাওয়ার অজুহাত দেওয়া হয়েছে।

আজকের সংবাদ সম্মেলনে বিটিএ সভাপতি শাহীন আহমেদ বলেন, এবার কোরবানির পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করতে চাননি তাঁরা। কিন্তু বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শে তা করা হয়েছে।

গত বছর কোরবানির পশুর চামড়ার যে দাম ঘোষণা করা হয়, তাতেও আগের বছরের চেয়ে দাম কমিয়ে নির্ধারণ করা হয়েছিল।

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে চামড়ার চাহিদার ৪৮ শতাংশ সংগ্রহ হয় কোরবানির ঈদে। গত বছর কোরবানিতে ৭০-৭৫ লাখ চামড়া সংগ্রহ হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ট্যানারির মালিকেরা।