June 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

মিনায় নিইতের সংখ্যা বেড়ে ৪৫৩, আহত ৭১৯

ডেস্ক প্রতিবেদনঃ সৌদি আরবের মিনায় হজ পালনের সময় পদদলিত হয়ে নিহত হাজির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৫৩। আহত হয়েছেন প্রায় ৭১৯ জন। বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির সিভিল ডিফেন্স সার্ভিস।

mina-dead

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পদদলিত হয়ে হাজিদের মৃত্যুর ঘটনাটি প্রকাশ করেছে সিভিল ডিফেন্স। পবিত্র শহর মক্কা থেকে ৩ মাইল দূরে মিনায় হজের প্রধান আনুষ্ঠানিকতার শেষ পর্ব শয়তানের উদ্দেশে পাথর নিক্ষেপের সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

In this image posted on the official Twitter account of the directorate of the Saudi Civil Defense agency, a pilgrim is treated by a medic after a stampede that killed and injured pilgrims in the holy city of Mina during the annual hajj pilgrimage on Thursday, Sept. 24, 2015. (Directorate of the Saudi Civil Defense agency via AP) MANDATORY CREDIT

এ বছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ২০ লাখ মুসল্লি সৌদি আরবে হজব্রত পালনে গেছেন।

সৌদি আরবের সিভিল ডিফেন্সের উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছেন, তারা হজতীর্থদের ঘটনাস্থল থেকে নিরাপদ সরিয়ে নেওয়ার কাজ করছেন। এ জন্য তারা হাজিদেরকে বিকল্প বিভিন্ন নিরাপদ রুট ব্যবহার করতে বলছেন। তাদের এই উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলেও টুইটারে জানানো হয়।

এর আগে চলতি মাসের শুরুতে নির্মাণকাজে ব্যবহৃত একটি বিরাট ক্রেন ভেঙে নিহত হন ১০৭ জন। এ ঘটনায় আহত হন ২৩৮ হাজি। হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর কয়েকদিন আগে ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালে মিনায় হজব্রতের শেষ পর্বের এই আনুষ্ঠানিকতায় পদদলিত হযে মারা যান ৩৬৪ হাজি। এ ছাড়া পবিত্র নগর মক্কায় ২০০১ সালে ৩৫ হাজি, ২০০৪ সালে ২৪৪ হাজি, ১৯৮৭ সালে ৪০০ হাজি, ১৯৯০ সালে ১ হাজার ৪২৬ হাজি, ১৯৯৪ সালে ২৭০ হাজি এবং ১৯৯৭ সালে পদদলিত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ৩৪৩ জন হাজি।