July 1, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনে একুশের ভাস্কর্য

ডেস্ক : জাতিসংঘ সদর দফতরের সামনে প্রথম বারের মতো মাসব্যাপী ভাস্কর্য স্থাপন করা হয়েছে।

জাতিসংঘের সদর দফতরের সামনে ভাষা শহীদ স্মৃতি স্তম্ভ স্থাপনের ঐতিহাসিক মুহূর্তকে বাংলা ভাষা ও ভাষা শহীদদের জন্য বড় অর্জন বলে জানিয়েছেন অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া বিশিষ্টজনেরা। তবে বাংলা ভাষা চর্চায় উদাসিনতা দূর করে তরুণ প্রজন্মের মাঝে তা ছড়িয়ে দিতে প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জানান অনেকে।

ফিতা কেটে সোমবার আনুষ্ঠানিক এ ভাস্কর্যের উদ্বোধন করা হয়।

অনুষ্ঠানে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘যত দ্রুত সম্ভব সরকারি উদ্যোগে নিউইয়র্কে একটি পূর্ণাঙ্গ শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে।’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন—বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি নিউইয়র্ক সিটি এবং স্টেটের প্রতিনিধিরা।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ঐতিহাসিক এ শুভ সূচনার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদনে এসে বিশ্বব্যাপী বাংলা ভাষা ছড়িয়ে পড়ায় উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মানুষ।

সেমন্তী ওয়াহিদের সঞ্চালনায় এবং আয়োজক সংগঠন মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের কর্ণধার বিশ্বজিৎ সাহার সার্বিক তত্ত্বাবধানে অমর একুশে ভাষা শহীদদের ভাস্কর্য উন্মোচনের আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা জামাল উদ্দিন হোসেন, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন, কনসাল জেনারেল শামীম আহসানসহ নিউইয়র্ক সিটি এবং স্টেটের প্রতিনিধিরা।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সভাপতি ডাক্তার সিদ্দিকুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবদুস সামাদ আজাদসহ কমিউনিটির নেতারা। এ ছাড়াও লেখক ও কলামিস্ট হাসান ফেরদৌস, সিনিয়ির সাংবাদিক নিনি ওয়াহেদ ও ফাহিম রেজা নূর।

ঐতিহাসিক এ ভাস্কর্য স্থাপনে নিউইয়র্ক সিটি ও জাতিসংঘসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সহযোগিতাকে সাধুবাদ জানান বিশ্বজিৎ সাহা।