July 1, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

পুলিশের জরুরি টহলে যুক্ত হচ্ছে হেলিকপ্টার

ডেস্ক প্রতিবেদন : আজ ৪১ বছরে পদার্পণ করছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ চার দশক পর পুলিশের জরুরি টহলে  যুক্ত হচ্ছে হেলিকপ্টার।  ডিএমপির সব সদস্যকে ক্ষুদ্রাস্ত্র দেওয়ারও কার্যক্রম শুরু হবে নতুন বছর। এছাড়া, ফরেনসিক ও সাইবার ল্যাব প্রতিষ্ঠাসহ সন্ত্রাস ও জঙ্গি দমনে জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে কমিউনিটি ও বিট পুলিশিং কার্যক্রমকে আরও জোরদার করার পরিকল্পনা নিয়েছে ডিএমপি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
ডিএমপি সূত্র জানায়, গেল বছরটি ছিল ঢাকা মহানগর পুলিশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি বছর। পরিকল্পিতভাবে নাশকতা ও সহিংসতার মাধ্যমে স্বাধীনতার সুফল ও সার্বভৌমত্বকে ধ্বংস করার চক্রান্ত ও অপতৎপরতা করে একটি মহল। মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্তদের রায় কার্যকর-পরবর্তী পরিস্থিতিতে  ধৈর্য, সাহসিকতা ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে নিয়ন্ত্রণ করেছে পুলিশ। ঢাকা মহানগরীর আইনশৃঙ্খলা ও নগরবাসীর জানমাল রক্ষায় ডিএমপি’র ১০ সদস্যকে জীবন দিতে হয়েছে। সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়েছেন ৯৩ জন।
সংশ্লিষ্টরা জানান, বিগত দিনের অপরাধ পর্যালোচনা করে ঢাকা মহানগর পুলিশের নেওয়া পরিকল্পনাগুলোর মধ্যে রয়েছে আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জামাদি সংগ্রহ করা। এছাড়া, মামলার তদন্তের কার্যক্রমকে আরও উন্নত ও প্রযুক্তি নির্ভর করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষিত ক্রাইম সিন ম্যানেজমেন্ট টিমের সংখ্যা বাড়ানো হবে।

মামলা তদন্তের সার্বিক মান বৃদ্ধি, দ্রুত তদন্ত শেষ করা ছাড়াও ফিজিক্যাল ও বায়োলজিক্যাল এভিডেন্স বিশ্লেষণের জন্য আন্তর্জাতিক মানের একটি ফরেনসিক ল্যাব প্রতিষ্ঠারও পরিকল্পনা নিয়েছে ডিএমপি। অত্যাধুনিক সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন ও সাইবার ল্যাবও প্রতিষ্ঠা করবে পুলিশ।

অস্ত্র পরিচালনায় দক্ষতা অর্জনের লক্ষ্যে শ্যুটিং রেঞ্জ স্থাপন, ডিএমপি’র সব সদস্যের ব্যবহারের জন্যে ক্ষুদ্রাস্ত্র প্রবর্তন, অপারেশনাল কার্যক্রমে গতিশীলতা বাড়াতে প্রয়োজনীয় মোটরযান সংগ্রহেরও পরিকল্পনা রয়েছে ডিএমপি’র। টহল, ফোর্স মোতায়েন, জরুরি আইনশৃঙ্খলা, রেসকিউ ও এভাকিউশনের জন্য প্রয়োজনীয় হেলিকপ্টারও সংগ্রহ করা হবে।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন স্বাস্থ্যকর পরিবেশ, মানসম্মত খাবার, পানি, আবাসন এবং মেসের সুবিধাগুলো নিশ্চিত করা ছাড়াও ডিএমপি’র প্রতিটি সদস্যের দক্ষতা ও সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। একইসঙ্গে জনশৃঙ্খলা ব্যবস্থাপনার কৌশল ও নীতিমালা প্রণয়ন ও ট্রাফিক আইন সম্পর্কিত সচেতনতামূলক কর্মসূচিও পরিচালনা করবে ডিএমপি।

আইসিটি ব্যবহারে ডিএমপি’র সব সদস্যকে দক্ষ করে তুলে সর্বক্ষেত্রে আইসিটি’র ব্যবহার নিশ্চিত করারও পরিকল্পনা নিয়েছে ডিএমপি। ডিএমপিকে উন্নত তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর একটি পেপারলেস সংস্থায় পরিণত করা এবং সরকারি ও বেসরকারি সব সংস্থার সঙ্গে পারস্পরিক সহযোগিতার ক্ষেত্র আরও বৃদ্ধি ও গতিশীল করার পরিকল্পনা নিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ।

এসব পরিকল্পনার বিষয় রাজারবাগে ঘোষণা দেওয়া হবে আজ। ‘নাগরিক প্রত্যাশা পুরনে ডিএমপি’ এ স্লোন নিয়ে ২০১৬ সালে ঢাকা মহানগর পুলিশ তাদের কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করা হবে বলে জানিয়েছেন জনসংযোগ শাখার উপ-কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার। এরইমধ্যে বাংলাদেশ পুলিশের সর্ববৃহৎ এবং সর্বাপেক্ষা দক্ষ ও এলিট ইউনিট হিসেবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছে। সব ধরনের অপরাধ দমনে ডিএমপি’র কার্যক্রম অতীতের মতো ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।