June 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

ডেইলি স্টার সম্পাদকের বিরুদ্ধে আরো চার জেলায় মামলা

ডেস্ক প্রতিবেদন : ইংরেজি পত্রিকা ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে আরো চার জেলায় মামলা করা হয়েছে। শেখ হাসিনার বিষয়ে ‘মিথ্যা ও বিকৃত তথ্য’ প্রকাশের জন্য মানহানির অভিযোগ এনে মামলাগুলো করা হয়েছে।

আজ রোববার পটুয়াখালী, রাঙামাটি, নেত্রকোনা ও দিনাজপুর জেলায় এ তিনটি মামলা করেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ‘এটিএন নিউজ’-এর একটি টক শোতে অংশ নিয়ে মাহফুজ আনাম সংবাদ প্রকাশের ব্যাপারে তাঁর ভুল স্বীকার করেন।

এর পর ৯ ফেব্রুয়ারি লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল ডেইলি স্টার সম্পাদকের বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় গোপালগঞ্জেও মানহানির মামলা হয় এ সম্পাদকের বিরুদ্ধে।

এর পর ১১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার মহানগর হাকিম স্নিগ্ধা রানী চক্রবর্তীর আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ এনে একটি মামলা করেন ঢাকা আইনজীবীর সমিতির এক সদস্য। বিচারক সরকারের অনুমতি নিয়ে পুলিশকে মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

এরই মধ্যে আজ আবার তিন জেলায় মামলা হলো। বিভিন্ন স্থান থেকে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

পটুয়াখালী

মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে পটুয়াখালী জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে পাঁচ কোটি টাকার একটি মানহানি মামলা করা হয়েছে। সকালে মামলাটি দায়ের করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট উজ্জ্বল বোস। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আসামির বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

মামলার আর্জিতে বাদী উল্লেখ করেন, সাংবাদিক মাহফুজ আনাম ১/১১-এর সময় বিরাজনীতিকীকরণের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ডিজিএফআইর সরবরাহকৃত তথ্য যাচাই-বাছাই না করেই একটি প্রতিবেদন ডেইলি স্টারে প্রকাশ করেন। এতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাসহ সংগঠনের সুনাম ও মানহানি হওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ মামলা দায়ের করা হয়।

আদালতে বেশ কিছু আইনজীবীর শুনানি শেষে মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারক এস এম তারিক শামস আসামি মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে সমন জারির করে আদেশ দেন।

বাদী জানান, আগামী ৫ এপ্রিল সশরীরে আসামিকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশনা রয়েছে আদালতের।

রাঙামাটি

ডেইলি স্টার সম্পাদকের বিরুদ্ধে সকালে রাঙামাটির মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে মানহানি মামলাটি করেন কাপ্তাই উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নাসিরউদ্দিন।

আদালতের বিচারক সামসুদ্দীন খালেদ বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দেন কোতোয়ালি থানাকে।

নেত্রকোনা

মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে সকালে নেত্রকোনা অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে মানহানির মামলাটি করেছেন সরকারি কৌশলী গোলাম মোহাম্মদ খান পাঠান বিমল। তিনি

১২০(ক), ১২৪(ক) ও ৫০১ ধারায় এ মামলা দায়ের করেন।

দিনাজপুর

দুপুরে জেলা অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে স্টার পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলাটি করেন অ্যাডভোকেট সামসুর রহমান পারভেজ।

আদালতের বিচারক আহসানুল হক মামলাটি গ্রহণ করে পরে আদেশ দেওয়ার দিন রেখেছেন।