September 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

প্রকৃতিকে অগ্নিস্নানে সূচি করে তুলতেই এসেছে পহেলা বৈশাখ

ডেস্ক প্রতিবেদন : ‘মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা/ অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা। এসো, এসো, এসো, হে বৈশাখ।’ সকল না পাওয়ার বেদনাকে ধুয়ে মুছে, আকাশ-বাতাস ও প্রকৃতিকে অগ্নিস্নানে সূচি করে তুলতেই আবার এসেছে পহেলা বৈশাখ। নতুন স্বপ্ন, উদ্যম ও প্রত্যাশার আলোয় রাঙানো নতুন বাংলা বছর । স্বাগত ১৪২৩।

bowshak

বিদায় ১৪২২। অনেক ঘটনা, অনেক স্মৃতি, হাসি-কান্না তথা আনন্দ-বেদনার স্মৃতিবিজড়িত আরও একটি বাংলাবর্ষ কালের গর্ভে হারিয়ে গেল। বছরের শেষ সূর্যাস্ত বিদায় জানালো একটি বছরকে। না-ফেরার এ দিন এখন শুধুই স্মৃতিচারণার। কেউ সুবর্ণ অতীত কিংবা বেদনার বছর মনে করেই হয়তো মানুষের মুখে মুখে রব উঠবে, কিন্তু জাগতিক নিয়ে আর ফিরবে না। রাত পোহালেই আসবে আরেকটি বছর, নতুন বাংলা বছর ১৪২৩ বঙ্গাব্দ।

boishak3

আবহমানকাল থেকে নানা লোকাচার, উৎসব ও অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বছরের শেষ দিন চৈত্রসংক্রান্তি পালন করে আসছে বাংলাদেশের মানুষ। পূর্ব দিগন্তে নতুন সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়ে যাবে নতুন বছর। নানা আয়োজনে ১৪২৩-কে স্বাগত জানানো হবে।

বাংলার চিরায়ত রীতি অনুযায়ী বছরের শেষ দিনের উৎসবকে বলা হয় চৈত্রসংক্রান্তি। হিন্দু সম্প্রদায়ের চড়ক পূজা চৈত্রসংক্রান্তির এক প্রাচীন ঐতিহ্য। নতুন বছরকে বরণের প্রস্তুতির পাশাপাশি শেষ দিনটিতে থাকে বর্ষ বিদায়ের বিভিন্ন আয়োজন।

bowshak4

এ দিনটিতে পুরান ঢাকায় ভূত তাড়ানো হয়। ওঝা সেজে হাতে ঝাড়ু নিয়ে বিশেষ ভঙ্গিমায় ছোট শিশুরা ভূত তাড়ানোর খেলায় মেতে ওঠে। প্রাকৃতজন জনপ্রজন্ম, বিশ্বকলাকেন্দ্র, সামাজিক সংগঠন ঢাকাবাসীসহ বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে চৈত্রসংক্রান্তি উপলক্ষে নগরীর বিভিন্ন এলাকা বের হবে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা। রং-বেরঙের মুখোশ পরে বিভিন্ন বয়সী মানুষ এ শোভাযাত্রায় অংশ নেয়।

bowshak1

বাংলা বছরের শেষ দিনটিতে ছোট-বড় সব ব্যবসায়ীই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করেন। নকশা করা রঙিন কাগজ-জরি আর ফুল দিয়ে সাজিয়ে তোলেন সাধ্যমতো বর্ণিল করে। লাল শালুতে মোড়া হালখাতাও তৈরি করেন এদিনেই। পরদিন নববর্ষে দিনব্যাপী চলবে হালখাতার উৎসব।

bangla