September 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

পয়লা বৈশাখের ছবিটির নাম ‘শঙ্খচিল’

ডেস্ক প্রতিবেদন :  পয়লা বৈশাখের ছবিটির নাম ‘শঙ্খচিল’। গৌতম ঘোষ পরিচালিত এই সিনেমাটির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও কুসুম শিকদার। মুক্তির আগেই ভারতের ৬৩তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা বাংলা ছবির পুরস্কার পেয়েছে সিনেমাটি। ‘শঙ্খচিল’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছেন হাবিবুর রহমান খান, ফরিদুর রেজা সাগর, প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি ও মৌ রায় চৌধুরী।

‘শঙ্খচিল’ গৌতম ঘোষের ১৪তম কাহিনী চিত্র। সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন— মামুনুর রশীদ, অনুপ রহমান খান, প্রবীর মিত্র, রোজী সিদ্দিকী, রিয়াজ মাহমুদ জুয়েল, শাকিল আহমেদ, শাহেদ আলী, দীপঙ্কর দে, অরিন্দম শীল, ঊষসী চক্রবর্তী প্রমুখ।

‘শঙ্খচিল’ ১৯৪৭ সালের দেশভাগ এবং পরবর্তী সময়ে সীমান্তবর্তী এলাকার মানুষের সুখ-দুঃখের গল্প। চলচ্চিত্রটি কোনো দেশভাগের গল্প নয়, দেশভাগের স্মৃতির গল্প।

এছাড়া বৈশাখকে সামনে রেখেই ৮ এপ্রিল সারাদেশে মুক্তি পায় দুইটি চলচ্চিত্র। এর মধ্যে একটি হলো সাফি উদ্দিন সাফি পরিচালিত ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড নিবেদিত বহুল প্রতীক্ষিত চলচ্চিত্র ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী-২’।

ঢাকার বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্স, যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টার্স, বলাকা, অভিসার, রাজমনিসহ সারাদেশে একযোগে মুক্তি পায় ছবিটি। ফ্রেন্ডজ মুভিজ ইন্টারন্যশনাল প্রযোজিত এবারের প্রেম কাহিনীতে রয়েছে ক্রিকেটের আবহ। রুম্মান রশীদ খান এবারও কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন।

‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী-২’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন শাকিব খান, জয়া আহসান মৌসুমী হামিদ, ইমন ও ওমর সানী। ফ্রেন্ডস ইন্টারন্যাশনালের ব্যানারে নির্মিত এই চলচ্চিত্রের প্রথম সিক্যুয়েল ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী’ মুক্তি পেয়েছিল ২০১৩ সালের ঈদুল আজহায়।

বৈশাখকে সামনে রেখে মুক্তি পাওয়া অন্য ছবিটি হলো জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত নতুন ‘অনেক দামে কেনা’।ছবিটি নির্মিত হয়েছে চার্লি চ্যাপলিনের বিখ্যাত ‘সিটিলাইট’ ছবির ছায়া অবলম্বনে।

ঢাকার মধুমিতা, সনি, সৈনিক ক্লাব, জোনাকি, পূর্ণিমা, পুনম, মুক্তি, চিত্রামহল, নিউ গুলশান, গীত, নারায়ণগঞ্জের নিউ মেট্রো, চাঁদমহল, যশোরের মণিহার, খুলনার শঙ্খ, চিত্রালী, রাজশাহীর উপহার, শেরপুরের চন্দ্রিমা, কুমিল্লার মধুমতি, নাটোরের ছায়াবাণীসহ দেশব্যাপী মোট ৯০টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পায় ছবিটি।ছবিটিতে অভিনেতা ডিপজলের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাহিয়া মাহি এবং বাপ্পি। এখানে একজন অন্ধ ফুল বিক্রেতার চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাহি। ছবিটি প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ছবিটির চিত্রনাট্য ও কাহিনী লিখেছেন আবদুল্লাহ জহির বাবু।