September 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে অদ্ভুত দুই বিশ্ব রেকর্ড (ভিডিও)

ডেস্ক প্রতিবেদন :  : সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে প্রায় একই সময়ে বিশ্বের দুই প্রান্তে দুটি ভিন্ন ধারার রেকর্ড হলো। একটি রাশিয়ার ব্ল্যাক সি রিসোর্টে। এখানেই ২০১৪ সালে অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বরফ ঢাকা এলাকায় নামমাত্র জামাকাপড় পরে স্কি প্রতিযোগিতায় নামেন ১ হাজার নারী-পুরুষ।  তীব্র ঠান্ডা উপেক্ষা করে সাঁতারের পোশাক আর বিকিনি পরে তারা স্কি করেন। দূর দূরান্ত থেকে এই উৎসবে অংশ নিয়ে আনন্দ পেতে ও পাশাপাশি ছুটি কাটাতে আসেন মূলত তরুণ-তরুণীরা।  কোনো অঘটন ছাড়া সব কিছু ভালোভাবেই হয়েছে। কারণ প্রফেশনাল স্কি ইন্সট্রাকটররা সহায়তা করেছেন অংশগ্রহণকারীদের।

বুগলউগল ফ্যাস্টিভাল নামের এই আয়োজন রেকর্ড গড়েছে। ২০১৩ সালে রাশিয়ার সাইবেরিয়ার শেরেগেশ রিসোর্টে ৫০০ জন নারী-পুরুষ অল্প জামাকাপড় পরে স্কি করে রেকর্ড গড়ে। সেটা গিনেজ বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পায়। এবারের প্রচেষ্টা আগের রেকর্ডকে ছাপিয়ে গেছে। আয়োজকরা জানিয়েছেন, ১৬ থেকে ৭০ বছরের ২৪০০ জন নারী পুরুষ ইভেন্টে অংশ নিতে আবেদন করে। পরে বেছে নেয়া হয় ১ হাজার প্রতিযোগীকে।

ওদিকে ১২০০ জন অংশগ্রহণকারী ম্যাট্রেস নিয়ে ৭০ হাজার স্কয়ার ফুট জায়গায় গড়ে তুললো সবচেয়ে বড় মানব ম্যাট্রেস ডোমিনো। এটিও একটি রেকর্ড। এর আয়োজক ছিলো আমেরিকার ম্যারিল্যান্ডের ইলেকট্রনিক্স ও আসবাবপত্র নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যারোন। এই ডোমিনো চেইন করতে মাত্র ১৩ মিনিট সময় লেগেছে। আর তাতেই গিনেজ বুকে নাম উঠে যায়। চিন্তা করুন, একই গতিতে একে একে ম্যাট্রেসসহ মাটিতে পড়ে যাচ্ছেন ১২০০ মানুষ। ভিডিও দেখলে বুঝতে পারবেন এটা কতোটা মজার!

তবে সাধারণ মানুষদের নিয়ে এ  ধরনের আয়োজন অনেক জটিলও বটে। ম্যাট্রেসগুলোর আকার কেমন হবে? অংশগ্রহণকারীরা কতোটুকু দূরে দাঁড়াবে?- এসব চুলচেরা বিশ্লেষণ করেই এই আয়োজন করা হয়েছিল। প্রতি ৫০ জন অংশগ্রহণকারীর সাথে একজন করে ইন্সট্রাকটর ছিলো, যাতে সবাইকে নিয়ম মেনে চলতে তাগিদ দেয়া যায়।

এর আগের রেকর্ডটি ছিলো জার্মানির একটি কোম্পানির। ২০১২ সালের ঐ আয়োজনে অংশ নেয় ১,১৫০ জন। এবারের বিশ্ব রেকর্ড গড়ার পেছনে একটি মহৎ উদ্দেশ্য ছিল। যেসব ম্যাট্রেস ব্যবহার করা হয় সেগুলো ওয়াশিংটন মেট্র্রোপলিটন এলাকায় ঘরহীন মানুষ ও দরিদ্রদের দান করা হবে।

https://youtu.be/Ytpyd9AiOKY