September 28, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

বন্ধ্যা নারীর মনস্তাত্ত্বিককে কেন্দ্র করে ‘লেইমা’র

ডেস্ক : এক বন্ধ্যা নারীর মনস্তাত্ত্বিক সংকটকে কেন্দ্র করে ‘লেইমা’র কাহিনী গড়ে উঠেছে। ফেদেরিকো গারসিয়া লোরকার ইয়ের্মা অবলম্বনে মণিপুরি থিয়েটারের নাট্যপ্রযোজনা ‘লেইমা’। বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি ভাষায় নাটকটির ভাষান্তর ও নির্দেশনা দিয়েছেন শুভাশিস সিনহা।

‘লেইমা’ এর চিত্র ফলাফল

রাজধানীর নাটক সরণির (বেইলী রোড) মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তনে শুক্রবার ৭ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টায় মঞ্চায়ন হবে মণিপুরি থিয়েটারের এ নাটকটি।

জাতীয় নাট্যোৎসবে নাটকটির প্রদর্শনী হবে জানিয়ে মণিপুরি থিয়েটারের সভাপতি শুভাশিস সিনহা বলেন, ‘ঢাকায় ১৮ দিনব্যাপী জাতীয় নাট্যোৎসব চলছে। নাট্যোৎসবে আমন্ত্রিত হয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় মহিলা সমিতি মঞ্চে নাটকটির বিশেষ প্রদর্শনী হবে।’

‘লেইমা’ এর চিত্র ফলাফল

তিনি জানান, ২০১৫ সালের ১০ এপ্রিল মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ থানার ঘোড়ামারা গ্রামে মণিপুরি থিয়েটারের নটমণ্ডপে দর্শনীর বিনিময়ে ‘লেইমা’র উদ্বোধনী প্রদর্শনী হয়। এরপর ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাঙামাটিতে নাটকটির প্রদর্শনী হয়েছে।

বিভিন্ন জায়গায় ‘লেইমা’ নাটকের প্রদর্শনী হলেও মহিলা সমিতি মঞ্চে প্রথমবার ‘লেইমা’ নাটকের প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে বলে জানান শুভাশিস সিনহা।

‘লেইমা’ এর চিত্র ফলাফল

নাটকের গল্পে দেখা যাবে, একটি সন্তানের জন্য লেইমা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। কিন্তু স্বামী জয় এ বিষয়ে একেবারে উদাসীন। সে নিজের আর্থিক অবস্থার উত্তরণের ইচ্ছাও হারিয়ে বসে। দিন-রাত বাইরে বাইরে খাটে।

এদিকে লেইমার পুরনো প্রেমিক ব্রজ প্রেরণা দেয় জীবনের। একদিন ত্রিমুখী সংকট দেখা দিলে ব্রজ চলে যায় অন্য এলাকায়। বন্ধ্যত্বের যন্ত্রণায় কুঁকড়ে যাওয়া লেইমা একদিন মাতৃত্বের দায় থেকে মুক্তি পেতে জয়কে হত্যা করে। আর্তনাদে ভেঙে পড়ে বলে, ‘আমি আমার সন্তানকে হত্যা করে ফেলেছি!

নাটকটির নির্দেশক শুভাশিস সিনহা জানান, মণিপুরি নাট্য আঙ্গিক ও পাশ্চাত্য অভিনয় রীতির রসায়নে পরিবেশিত হবে দেড় ঘণ্টার সময়ব্যাপ্তির নাটক ‘লেইমা’। এতে লেইমার ভূমিকায় অভিনয় করবেন জ্যোতি সিনহা।

আরও অভিনয় করবেন সুরজিৎ সিংহ, বিধান সিংহ, সুশান্ত সিংহ, স্মৃতি সিনহা, শ্যামলী সিনহা, সুজলা সিনহা, শ্রাবণী সিনহা, অরুণা সিনহা, উজ্জ্বল সিংহ, দীপু সিংহ, সমরজিৎ সিংহ, অনিমেষ সিংহ। সঙ্গীতে রয়েছেন শর্মিলা সিনহা। বাদ্যে বাবুচান সিংহ, সুশান্ত সিংহ ও অঞ্জনা সিনহা।