September 19, 2021

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

আওয়ামী লীগের এক বছরের জন্য বাজেট নির্ধারণ

ডেস্ক : আওয়ামী লীগ এক বছরের জন্য ১২ কোটি ৩৫ হাজার টাকা বাজেট নির্ধারণ করেছে। ২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা দলটির ২০তম জাতীয় সম্মেলনে খরচ করা হবে। দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় নির্মাণে ব্যয় করা হবে ৫ কোটি টাকা। বাকী টাকা দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে ব্যয় করা হবে।

শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির এক বৈঠকে বাজেট সংক্রান্ত এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় পরিষদ সভায় এক বছরের জন্য দলীয় বাজেটের প্রস্তাব উপস্থাপন করেন দলটির কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান। পরে সেই বাজেট অনুমোদিত হয় বলে বৈঠকে উপস্থিত একাধিক নেতা জানিয়েছেন।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যদের নিয়মিত দলীয় চাঁদা পরিশোধ করার নির্দেশ দেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা। বৈঠকে আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য চাঁদা ১০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। কাউন্সিলরদের বার্ষিক চাঁদা ১শ’ টাকার স্থলে বাড়িয়ে ২শ’ টাকা, দলীয় সংসদ সদস্যদের বার্ষিক চাঁদা ৫শ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২ হাজার টাকা করা হয়েছে।

অপর দিকে বৈঠকের শুরুতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৮১ থেকে ২০১৬। ৩৫ বছর। আর কত? আমি চাই, সবাই নতুন নেতা নির্বাচন করুক।’

এ বক্তব্যের সময় উপস্থিত জাতীয় কমিটির নেতারা ‘না’ বলে দলীয় প্রধানের বক্তব্যের বিরোধীতা করেন এবং শেখ হাসিনার প্রতি তাদের পূর্ণ আস্থার অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন।

পরে দলীয় প্রধানের এমন বক্তব্যের রেশ ধরে জাতীয় কমিটির একাধিক নেতা বক্তব্যে দেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্যে করে জাতীয় কমিটির নেতারা বলেন, নেত্রী ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর অনেককেই দেখা যায়নি। তারা সরিয়ে দাড়িয়েছিল। অনেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়েছিলো। এবারের সম্মেলনে সেইসব মুখ যেন নেতৃত্বে না আসে সে বিষয়টি লক্ষ্য রাখবেন-এটা আমাদের অনুরোধ।

দিনাজপুর, পঞ্চগড়, বাগেরহাট, সিলেট ও খুলনা জেলার জাতীয় কমিটির সদস্যরা বক্তব্যে শেখ হাসিনাকে পুনরায় আওয়ামী লীগ সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত করার দাবি জানান।

তারা বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ তিন বার ক্ষমতায় এসেছে। বাংলাদেশ বিশ্ববাসীর চোখে একটি রোল মডেল হিসেবে অবস্থান করছে। দেশ ও জাতির উন্নয়নের স্বার্থে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে আবারো দলের সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই।

এ সমস্ত বক্তব্যের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় কমিটির নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘এটা নেতা নির্বাচনের জায়গা নয়।’