November 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

আন্তর্জাতিক সংস্থা জেনোসাইড ওয়াচের ঘোষণাপত্র

ডেস্ক : ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে সংঘটিত নারকীয় হত্যাযজ্ঞকে জেনোসাইড স্বীকৃতি দিয়ে আন্তর্জাতিক সংস্থা জেনোসাইড ওয়াচের ঘোষণাপত্র:
তৌহীদ রেজা নূর এর নিজের ফেসবুক আইডি থেকে দেওয়া ওই স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-
আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে, আমার আবেদনের প্রেক্ষিতে আন্তর্জাতিক সংস্থা জেনোসাইড ওয়াচ-এর পক্ষ থেকে আজ কিছুক্ষণ আগে Declaration on the 50th anniversary commemoration of the Bangladesh genocide প্রকাশ করেছে যা বাংলাদেশ জেনোসাইড এর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জনের পথযাত্রায় আরেক ধাপ এগিয়ে যাওয়া। Lemkin Institute-এর পক্ষ থেকে বাংলাদেশে জেনোসাইডের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিসূচক বিবৃতির এক মাসের মাথায় জেনোসাইড ওয়াচ ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে সংঘটিত জেনোসাইডের বিষয়ে স্বীকৃতিসূচক এই ঘোষণা দিল। জেনোসাইড ওয়াচের প্রেসিডেন্ট হলেন একজন নামজাদা জেনোসাইড বিশেষজ্ঞ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের George Mason University’র সাবেক অধ্যাপক Gregory Stanton। এই ঘোষণাপত্রটিতে বাংলাদেশে সংঘটিত জেনোসাইডের বিষয়গুলি অত্যন্ত বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে এবং এর উপসংহারে অত্যন্ত জোরালো দাবি তোলা হয়েছে।

এভাবেই একে একে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন দেশ এগিয়ে আসবে এবং দ্বিধাহীনভাবে স্বীকার করবে যে ১৯৭১ সালে এই জনপদে বর্বরতম জেনোসাইড সংঘটিত হয়েছিল। আমি কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করছি আমাদের সকল শহীদদেরকে – যারা নিজেদের পরিচয় উচ্চকিত করে সম্মানজনকভাবে বাঁচার যোগ্য একটি সমাজ গড়ার স্বপ্ন দেখার অপরাধে শতাব্দীর নৃশংসতম জেনোসাইডের শিকার হয়েছিলেন।
অধ্যাপক Gregory Stanton এবং তাঁর দলের সকল সদস্যকে অভিবাদন জানাই দ্বিধাহীনভাবে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে সংঘটিত জেনোসাইডের স্বীকৃতি সূচক এই বিস্তৃত ঘোষণাপত্রটি প্রকাশ করায়।

“আমরা ছাড়বো না ছাড়বো না
মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রাম ছাড়বো না…”
জয় বাংলা।। জয় বঙ্গবন্ধু।।
“দাম দিয়ে কিনেছি বাংলা
কারো দানে পাওয়া নয়…”
লেখকঃ সাংবাদিক ও শহীদ বুদ্ধিজীবী সিরাজউদ্দিন হোসেন এর পুত্র। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি গবেষণা ও লেখালেখির সাথে যুক্ত আছেন। বরাবরই তিনি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে সোচ্চার ভূমিকা পালন করেছেন। প্রজন্ম’ ৭১ এর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক।