December 4, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে সম্প্রীতি বাংলাদেশের আলোচনা সভা

ডেস্ক : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৬৯তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ আয়োজিত এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে রাজনীতিবিদদের চায়ের টেবিলে বসে সংকট সামাধানে আলাপ আলোচনা করার আহবান জানিয়েছেন শিক্ষা উপ মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধূরি নওফেল।

তিনি বলেন, বিদেশি কূটনৈতকদের কাছে ছুটাছুটি করে বিএনপি জামায়াত দেশের সম্মান নষ্ঠ করছে।

গত মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ আয়েজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক, ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান জয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিঙ্গান বিভাগের চেয়ারম্যান সাদেকা হালিম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, মহাসচিব অধ্যাপক ডা মামুন আল মাহতাব সপ্নীল বক্তব্য রাখেন।

শেখ রাসেলের জন্মদিন, গাহি তারুণ্যের জয় গান শ্লোগানে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপমন্ত্রী বলেন, এক সময় মানুষ কল্পনাও করতে পারেনি আওয়ামি লীগ ক্ষমতায় আসবে। বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হবে তাও কেউ ভাবেনি। কিন্তু এই দেশেই সব সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, শেখ রাসেলের মতো একজন নিষ্পাপ শিশুকে হত্যার মধ্যে দিয়ে আগের প্রজন্মের আওয়ামী লীগ একটা দীক্ষা নেয়। সেই দীক্ষা থেকে এখন নতুন প্রজন্ম তৈরি হয়েছে।

বিরোধী দলগুলো সুযোগ পেলেই কুটনীকদের কাছে দৌড়ঝাঁপ করছে বলেও উলে­খ করেন নওফেল।

তিনি বলেন, কূটনীকদের সুযোগ দেওয়ার কারনে তারা সামনে মাইক পেলে আর অমায়িক থাকে না। দেশে অন্য দেশগুলোর মিশনে পলিটিক্যাল কাউন্সিলর থাকারও সমালোচনা করেনি শিক্ষা উপ মন্ত্রী। তিনি বলেন, দেশের রাজনীতিতে নাক গলানোর জন্য এই পদটি রাখা উচিত নয়।

মাণবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধূরির ছেলে হুম্মাম কাদেরের নারায়ে তাকবির শ্লোগান দেওয়া নিয়ে সমালোচনা করে মহিবুল হাসান চৌধূরী নওফেল বলেন, নিজে নামাজ থেকে দূরে থেকে, পার্টিতে গিয়ে, মদ পান করে। কিন্তু রাজনীতির মাঠে ধর্মকে ব্যাবহার করে গরম করে তারা। ধর্ম ব্যাবসা হুম্মাম কাদেরদের পারিবারিক ব্যাবসা বলে উলে­খ করেন নওফেল।

অনুষ্ঠানে, বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক বলেন, বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় আমরা আগামিতে কিছু ষড়যন্ত্র দেখতে পাচ্ছি। দেশের অগ্রযাত্রাকে রহিত করার জন্য এই ষড়যন্ত্র। এর প্রতিকার করতে এখনি সবাইকে ঐকবদ্ধ হতে হবে।

সাদেকা হালিম বলেন, আগামি সাধারন নির্বাচন সামনে রেখে ধর্মকে নিয়ে অপপ্রচার শুর“ হয়ে গেছে। ধর্ম ব্যাবহার করে অপপ্রচার এখনি প্রতিরোধ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আগামী নির্বাচন আসছে। ষড়যন্ত্র হবে। জাতীয় আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র হবে। সম্প্রীতি নষ্ঠের ষড়যন্ত্র হবে। বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে আঘাত করার ষড়যন্ত্র হবে। এটা গোপন না। তিনি বলেন, আমরা ভয় পাই না। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ কখনও ভয় পায় না।