December 4, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

সম্পত্তির দ্বন্দ্বে বাবাকে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৪

ফৌজিয়া আক্তার,ফরিদপুর: ফরিদপুরের সালথায় সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বের খালেক সর্দার (৫৫) নামের এক কৃষককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী, দুই মেয়ে, ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) সকালে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে খালেক সর্দার মারা যান।

মারা যাওয়া খালেক সর্দার উপজেলার আটঘর ইউনিয়নের দক্ষিণ আটঘর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জমিজমা ভাগাভাগি নিয়ে গত ১৪ অক্টোবর রাতে খালেক সর্দারের সঙ্গে তার স্ত্রী আম্বিয়া বেগম, মেয়ে রুনা আক্তার, সাবানা আক্তার ও ছেলে সাব্বির সর্দারে ও মেয়ের জামাই রিয়াজুলের ঝগড়া হয়। এসময় তারা খালেক সর্দারকে মারধর করে। গুরুতর আহত অবস্থায় পরে খালেক সর্দারকে ফরিদপুর একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন অভিযুক্তরা। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে ২৫ অক্টোবর ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই শনিবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় খালেক সর্দার মারা যান।

নিহতের বড় ভাই মালেক সর্দার বলেন, জমির জন্য আমার ভাইকে রাতে বউ ছেলে-মেয়েরা মারধর করে গোপনে হাসপাতালে ভর্তি করে। শনিবার হাসপাতালে মারা যাওয়ার পর আমার ভাইয়ের লাশ গ্রামে এনে কাউকে না জানিয়ে গোপনে দাফন করার চেষ্টা করে। বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ অভিযুক্তদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক বলেন, শনিবার হাসপাতালে মারা যাওয়ার পর ছেলে মেয়েরা লাশ বাড়িতে আনলে নিহতের ভাইয়েরা বিষয়টি আমাদের জানায়। আমরা লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছি।