November 30, 2022

দৈনিক প্রথম কথা

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক

ঘাটাইল সংগ্রামপুর ইউনিয়নবাসী মান্নান-কে চেয়ারম্যান হিসেবে চায় !

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: আসন্ন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোয়ন প্রত্যাশী বিশিষ্ট ব্যসায়ী, তরুণ সমাজ সেবক ও সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মান্নানকে চেয়ারম্যান হিসেবে চায় ইউনিয়নবাসী। সময় ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে সংগ্রাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সম্ভাব্য দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন। মোঃ আব্দুল মান্নান চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে সাড়া ফেলেছে ব্যাপক ভাবে। চায়ের দোকান, পাড়া মহল্লা, মাঠঘাট, হাটবাজার সর্বত্র সাধারণ মানুষের মাঝে চলছে সরগরম আলোচনা। সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজ যোগ্যতা যাচাইয়ের জন্য তৎপরতা শুরু করেছেন। দলীয় নেতা-কর্মীদের মতে, দলমত নির্বিশেষে সাধারণ মানুষ চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো: আব্দুল মান্নানকে । খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান হিসেবে সাধারণ মানুষের মধ্যে তার আকাশচুম্বি যে জনপ্রিয়তা রয়েছে তাতে যোগ্য প্রার্থী মোঃ আব্দুল মান্নান। তৃণমুল নেতাকর্মিদের সঙ্গে থেকে এখনও সাধারণ মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন তিনি। সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে চান সাধারণ মানুষ। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাকে এগিয়ে নিতে ঐক্যবদ্ধ সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করছেন তিনি। বিশিষ্ট সমাজসেবক হিসেবে সকলের কাছেই সুপরিচিত একজন নেতা। মানুষের সেবা করাই জীবনের লক্ষ্য ও একমাত্র আশা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মান্নান এর। সারা জীবন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আর্দশ নিয়ে রাজনীতি করেছেন তিনি। তিনি ছোটবেলা থেকেই মানুষের সেবা করার চেষ্টা করে আসছেন। জীবনের বাকি সময়েও মানুষের সেবা করেই থাকতে চাই। একজন সৎ সাহসীকতার রাজনৈতিক দলের কর্মী হিসেবে সকলের কাছেই সুপরিচিত মান্নান । গরীবের বন্ধু ও সমাজ সেবক, অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের প্রতি আন্তরিকতার সাথে কাজ করে চলছেন। তাই সকলেই ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে আপনজন হিসাবে চিনেন ও জানেন এই জনদরদী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পদপ্রার্থী মান্নানকে ।

তিনি রাজনীতি করেন মানুষের জন্য। যেমন বৈশ্বিক করোনা মহামারির প্রাক্কালে সরকারের সহযোগিতার পাশাপাশি তিনি ছিলেন সাধারণ মানুষের পাশে। মানবতার ফেরিওয়ালা একজন সৎ সাহসীকতার কর্মী হিসেবে পর্যাপ্ত খাদ্য সহযোগিতা নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। করোনাভাইরাসের কারণে সংগ্রামপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় কর্মহীন হয়ে পড়েছিল হাজার হাজার মানুষ। বিশেষ করে খেটে খাওয়া নিন্ম আয়ের লোকজন সবচে বেশি ভোগান্তিতে ছিলো । যারা দিন এনে দিন খেতেন এমন মানুষজন খাদ্য সংকটে পড়েছিল বেশিরভাগ।পরে এই করোনাকালে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিল তিনি। মোঃ আব্দুল মান্নান মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে এখন পরিচিত। সেই ধারাবাহিকতায় করোনা যুদ্ধেও এখন সক্রিয় অবস্থানে তিনি।করোনা প্রাদুর্ভাবের সময় নিজ উদ্যোগে খেটে খাওয়া মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে তুলে দিয়েছিলো খাবার। আর তাদের সচেতনতায় দিয়েছিলেন মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান। আর এখন চারদিকে আলোচনায় এসেছে তাঁর নাম। তার নেতৃত্বে ছুটে চলছে মানবিক সহায়তায়। সাধারণ মানুষ তার আপনজন। বিশেষ করে সমাজের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সকল জনগণের সাথে রয়েছে তার খুব ভাল যোগাযোগ। তার রাজনৈতিক যোগ্যতার পরিচয় ও দক্ষতার তৃণমূলের একজন কর্মী থেকেই আজকে সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে যোগ্য। সততার সঙ্গে রাজনীতি করে আসছে তিনি। দলের ত্যাগী নেতা হিসেবে চেয়ারম্যান পদে দেখতে চায় জনগণ। তিনি তাঁর রাজনৈতিক কর্মতৎপরতা, প্রগতিশীল চিন্তাভাবনা,সৃষ্টিশীল কাজে উদ্যোগী, অন্যায়ের বিরুদ্ধে আপোষহীন, এবং সামাজিক ন্যায়পরায়ন ব্যক্তি হিসেবে আজকের এই সময়ে একজন যোগ্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর উদাহরণ। তাঁর নেতৃত্বদানের ক্ষমতা, নেতৃত্বের গুনাবলী, সৎচ্চরিত্রাবলী এবং রাজনৈতিক জীবনের বিশাল কর্মযজ্ঞই প্রমাণিত করে তিনি রাজনৈতিক মাঠের একজন কর্মদক্ষ নেতা। সে ছাত্রাবস্থা থেকেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক জীবনের আদর্শকে লালন করে তিনি তাঁর রাজনৈতিক জীবন গড়েছেন। তাঁর নৈতিক গুনাবলী অসাধারণ।

স্থানীয় নেতা- কর্মীরা বলেন, চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মান্নানকে আমরা বিপদে-আপদে সবসময় কাছে পাই। যার ফলে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জণে সক্ষম হয়েছেন। জনপ্রিয়তা, দলের প্রতি আস্থা, কর্মী বান্ধব নেতা ও সমাজ সেবক হিসেবে যোগ্যতা প্রমাণ দিয়েই তিনি রাজনীতি শুরু করেছেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী। তার এমন কিছু বিশেষ গুণাগুণ রয়েছে অন্যদের থেকে দলের নেতাকর্মীদের কাছে অনেক প্রিয় মান্নান । তার রাজনীতি বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে , নিজ কর্মদক্ষতার বলেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে তিনি। নেতাকর্মীরা জানান, তিনি সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকেন। বিশেষ করে তরুণরা তাকে খুব ভালবাসে, একজন সৎ মানুষ হিসেবে তার কাছে ছোট বড় কোনো ভেদাভেদ নেই। আর এ কারণেই বড়, ছোট, ধনী দরিদ্র সবাই তাকে সংগ্রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দেখতে চায়।

এজন্যই তার প্রতি থাকা ভালবাসার টানেই এলাকার যেকোন কঠিন সমস্যার সঠিক সমাধানের জন্য বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষজন ছুটে যান তার কাছে। সেখানে গেলে তৃণমূলের মানুষজন নিজেদের বিশ্বাসের সঠিক মূল্যায়নও পাই। মেহনতী মানুষকেই স্বরণে রাখেন মানুষ। সমাজের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। বর্তমানেও করছে এবং অনাগত দিনগুলোতেও কাজ করবে। আর সেই মেহনতি মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্য চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় জনগণ । মানুষ বলছেন ‘মানবতার ফেরিওয়ালা’চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ আব্দুল মান্নান ।

মানুষের জন্যই মানুষ, মানুষ মানেই মানবতা। মানবতার বাজারে মানুষের জন্য যে মানুষেরা ছুটে বেড়ায়, তারাই মানবতা৷ যাদের মানবতায় মানব সমাজে ফুটে উঠে মানবিক পরিচয়।অসহায় বিপদগ্রস্থ মানুষের সেবা করাই যাদের ধর্ম তাদের মর্যাদা মানুষেরাই দিয়েছে যুগ যুগ ধরে৷যার মন মানুষের জন্য কাঁদে তাকে ঘীরেই বেঁচে থাকে অসংখ্য মানুষ। কারন তার ভালোবাসায় আশার আলো জ্বলতে থাকে যা অসংখ্য মানুষের মনকে উচ্ছ্বাসিত করে রাখে। আশাবাদী মানুষের বিশ্বস্ত সে মানুষ হলেন একজন মহৎ, উদার আর বড় মনের মানুষ। যার কাজই হলো পরোপকার করা। যার রাজনীতিই মানুষের জন্য,তার হৃদয়টাও মানুষের ভালোবাসায় পরিপূর্ণ৷ মানুষের মুখে মুখে শোনা যাচ্ছে মানবিক একজন একজন সফল নেতাকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বুকে ধারণ করে অসহায় সুবিধাবঞ্চিত মানুষের সেবা করে যাচ্ছে এবং বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম নিয়ে জনগণের মাঝে আলোচনা করে যাচ্ছছেন তিনি।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে সংগ্রামপুর ইউনিয়নে বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে আগাম নির্বাচনী গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। সমাজসেবক, দানবীর, গরীবের বন্ধু, সংগ্রামপুর ইউনিয়নের মাটি ও মানুষের নেতা তিনি। সংগ্রামপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে নেতাকর্মী ও সমর্থকেরা জানিয়েছেন মোঃ আব্দুল মান্নান চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পেলে তাকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করবে। স্থানীয় জনগণ একটি কথাই বলে মান্নান চেয়ারম্যান হলে উন্নয়নের জোয়ারে বইবে সংগ্রামপুর ইউনিয়নে।

এবিষয়ে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ আব্দুল মান্নান বলেছেন, আমি সারাজীবন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ লালন করে রাজনীতি করে আসছি। সংগ্রামপুর ইউনিয়নের জনগণের যদি আমাকে চেয়ারম্যান হওয়ার সুযোগ করে দেয় তাহলে ইউনিয়নকে মডেল হিসাবে গড়ে তুলবো। তিনি আরো বলেন, আমি মুজিব আদর্শে বিশ্বাসী। দলীয় আদেশ মেনে চলি, দলের জন্য কাজ করি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নে অব্যাহত রাখতে সংগ্রামপুর ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়েছি। তিনি আরও বলেন, আমাকে প্রধানমন্ত্রী দলে নৌকা প্রতীক দেবেন বলে আমি আশা করি এবং বিশ্বাস করি। আমি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছি। আমাকে দল যদি নৌকা প্রতীক দেন আমি তার মর্যাদা ও দায়িত্ব সঠিক ভাবে পালন করবো ইনশাহআল্লাহ।